আন্তর্জাতিক মানদণ্ডকে স্বাগতম: সানো শহর, তোচিগি জেলা
ক্রিকেট হচ্ছে একটি জনপ্রিয় খেলা। সারা বিশ্বের প্রায় ৩০ কোটি লোক এটি উপভোগ করে থাকেন। কিন্তু জাপানে যেখানে খেলোয়াড়দের সংখ্যাই কেবল ৪ হাজার সেখানে দেশটি এই ব্যাট-বলের খেলায় নতুন। অনেক জাপানিই জানেন না যে ক্রিকেট আসলে কী। উত্তর টোকিও’র তোচিগি জেলার সানো শহর এই খেলার মাধ্যমে তাদের শহরকে এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্য ধরেছে। তারা একটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাঠ স্থাপন করেছে, যেখানে জাপানের এখন পর্যন্ত প্রথম অল্প বয়সী দলকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে যারা দক্ষিণ আফ্রিকায় আইসিসি অনুর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০২০-এ অংশ নিয়েছিল। এ অনুষ্ঠানে কিভাবে তারা এই অবিস্মরণীয় অর্জন লাভ করল সে কথা তুলে ধরা হবে।
প্রিয় পরিবারের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত আইসিসি অনুর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০২০-এ অংশ নেয়া জাপানি দল।
বিশ্বের এই শীর্ষস্থানীয় প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া তোচিগি'র সানো, টোকিও'র আকিশিমা, চিবা ও অন্যান্য স্থানের ক্রিকেট খেলোয়াড়রা।
সানো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাঠটি একটি বন্ধ হয়ে যাওয়া স্কুলের স্থানে তৈরি করা হয়েছে। এই স্থাপনা জাপানি দলের দক্ষতাকে বাড়াতে সাহায্য করার পাশাপাশি শহরটিকে জাপানের ক্রিকেট খেলার রাজধানীতে পরিণত করেছে।
আন্তর্জাতিক মাঠের কাছের একটি জিমনেসিয়ামে সানো ব্রেভস-এর শিশুরা ক্রিকেট অনুশীলন করছে। কোন একদিন তারা হয়তো বিশ্বকাপ ক্রিকেটে অংশ নেবে।