ভালুককে সাথে নিয়ে বসবাস
আজ আমরা কথা বলব একজন বৃটিশ তরুণীর সাথে যিনি জাপানে এশীয় কৃষ্ণ বন্য ভালুক নিয়ে গবেষণা এবং এদের সংরক্ষণের কাজ করছেন। জাপানকে কাজের স্থান হিসেবে বেছে নেয়া সারা বিশ্ব থেকে আসা লোকজনের জীবনযাত্রার এক জানালা হচ্ছে জাপানের কর্মক্ষেত্র অনুষ্ঠান।
২৪ বছর বয়সী আমেলিয়া জয়েস হাইওনজ এর কাজ হলো নাগানো জেলার কারুইযাওয়া’র বন্য ভালুক নিয়ে গবেষণা এবং এদের সংরক্ষণ করা।
আমেলিয়া পিকিও বন্যপ্রাণী গবেষণা কেন্দ্র নামের একটি এনপিও’তে ২০১৯ সাল থেকে কাজ করছেন। এই কেন্দ্রকে স্থানীয় সরকার ভালুকের জীবনযাত্রার পরিস্থিতি নিয়ে সমীক্ষা করার দায়িত্ব দিয়েছে।
মধ্যরাতে, আমেলিয়া এবং তার দলীয় বন্ধুরা রাত্রিকালীন টহলের অংশ হিসেবে দূরমাপন যন্ত্র ব্যবহার করে শনাক্তকারী গলা বন্ধনী স্থাপন করা ভালুকের উপর নজর রাখেন। কেন্দ্রটি বর্তমানে প্রায় ৪০টি ভালুকের গতিবিধির উপর নজর রাখছে।
এই কেন্দ্রে দু’টি ভালুক তাড়ানো কুকুর রয়েছে। এই কুকুরগুলোকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। এগুলো গন্ধ শুকে বলতে পারে বনের মধ্যে কোথায় ভালুক আছে এবং তাদেরকে বনের মধ্যে তাড়িয়ে নিয়ে যেতে পারে।