স্বপ্নের পুনর্জাগরণ
মানুষের গল্প, জীবনের গল্প। নিজ শহরের গল্প শিরোনামের অনুষ্ঠানে সারা জাপানের বিভিন্ন ব্যক্তির গল্প আমরা আপনাদের শুনিয়ে থাকি। উত্তর জাপানের শহর, ‘ওমা মাগুরো’ নামে পরিচিত প্রথম শ্রেণীর টুনার কারণে বিখ্যাত ওমা শহরে মৌসুমী মৎস্যজীবীরা ব্লুফিন টুনা ধরার জন্য রীতিমত লড়াই করে থাকেন। ৫৭ বছর বয়সী একজন শিক্ষানবিশ মৎস্যজীবী ৪ বছর আগে পশ্চিম জাপান থেকে এখানে আসেন। তার কন্যারা বড় হয়ে যাওয়ার পরে, তিনি টুনা মাছ শিকারি হওয়ার তার স্বপ্ন পূরণের সিদ্ধান্ত নেন। কোথায় কিভাবে মাছ ধরবেন একেবারে স্বাধীনভাবে সে সিদ্ধান্ত নেয়ার পরে, তিনি ১০০ কেজির উপরের একটি টুনা মাছ ধরার লক্ষ্য নির্ধারণ করেন। প্রচণ্ড স্রোত থাকা উত্তরের পানিতে মাছ ধরার তার লড়াইয়ের সাথে আমরা শামিল হব।
৫৭ বছর বয়সী শিক্ষানবিশ মৎস্যজীবী সাকামোতো মাসাওকি
৫০ বছর পার করার পর স্বপ্ন পূরণ। সাকামোতো মাসাওকি ব্লুফিন মাছ ধরার মৌসুমে এই মাছ ধরার শহরে গিয়ে থাকেন এবং হৃষ্টপুষ্ট মাছের খোঁজে সমুদ্রে বেরিয়ে পড়েন যা তার জন্য সৌভাগ্য বয়ে আনতে পারে।
আওমোরি জেলার ওমা'তে ধরা ব্লুফিন টুনাকে প্রথম শ্রেণীর বলে বিবেচনা করা হয় এবং প্রতিটি ৫০ লক্ষ ইয়েন বা প্রায় ৪৫ হাজার ডলার করে বিক্রি হয়।