ইউক্রেনীয় এক বালকের মার্শাল আর্ট শিক্ষা
আজকের পর্বের কেন্দ্রীয় চরিত্র হচ্ছে ইউক্রেন থেকে আসা ১৩ বছর বয়সী আর্টেম সিম্বালুক যে ২ হাজার মিটার উঁচুতে পাহাড় ঘেরা নাগানো জেলার তাকামোরি শহরের এক দোজো’তে মার্শাল আর্টের প্রশিক্ষণ নিচ্ছে। তাদের মাতৃভূমিতে রাশিয়ার আক্রমণ থেকে বাঁচার জন্য জাপানে আসা ৪টি ইউক্রেনীয় পরিবারের মধ্যে আছে আর্টেম। এই দোজো’র প্রধান তাকামোরি’তে তাদেরকে স্বাগত জানান। চলুন শুনি আর্টেমের কাহিনী - যে মার্শাল আর্টের একজন বিকশিত হয়ে চলা শিল্পী। সে তার মায়ের সাথে যুদ্ধ থেকে পালিয়ে এসেছে।
একটি দোজো’তে মার্শাল আর্টের প্রশিক্ষণ নেয়া ইউক্রেন থেকে আসা ১৩ বছর বয়সী আর্টেম সিম্বালুক।
ইউক্রেন থেকে আসা আর্টেম সিম্বালুক এবং তার মা ওলেনা ভলোসেনকো
আর্টেম এবং ইউক্রেনীয় শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানোর সিদ্ধান্ত নেয়া যেনদোকাই কারাতে’র চেয়ারম্যান ওযাওয়া তাকাশি