কেউ পিছিয়ে থাকবে না
আমরা মিয়ানমার থেকে আসা শরণার্থী অং মিয়া উইন’এর সাথে দেখা করেছি। তিনি ওসাকা শহরে একটি রেস্তোরাঁ চালান যেখানে তার নিজ দেশের বৈশিষ্ট্যপূর্ণ স্বাদের খাবার পরিবেশন করা হয়। তিনি আরও একটি ব্যবসা ব্যবস্থাপনা করেন যেটি প্রতিবন্ধীদের সেবা প্রদান করে থাকে। তাদের নিজ দেশের বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে, উইন জাপানে বসবাস করা মিয়ানমারের নাগরিকদের সাহায্যের প্রস্তাব দিচ্ছেন, যারা তিনি যখন ২০ বছর আগে এখানে এসেছিলেন সেই সময়ের তার মতো সংগ্রাম করছেন।
মিয়ানমার থেকে আসা অং মিয়া উইন
নতুন নতুন স্বাদের ব্যাপারে উৎসুক জাপানি গ্রাহকদের মনোযোগ আকর্ষণ করছে উইনের রেস্তোরাঁ।
সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া অধ্যাপক সুও সেৎসুও
শরণার্থী মর্যাদা পাওয়ার অপেক্ষায় থাকা মিয়ানমারের নাগরিকদের সাহায্য করছেন উইন।