ক্রিস’এর ছোট নাইজেরীয় দোকান
টোকিও’র উত্তরের সাইতামা জেলার শহর কোশিগাইয়া। এই এলাকায় বর্তমানে ৫০০-রও বেশি নাইজেরীয় নাগরিক বসবাস করেন। এদের মধ্যে একজন হচ্ছেন ক্রিস অ্যান্ড্রুস। তিনি একটি ছোট দোকান চালান। এই দোকানটি হচ্ছে সাধারণ মুদি দোকান এবং সেই সাথে একটি রেস্তোরাঁ যেটি নাইজেরীয় সম্প্রদায়ের লোকজনকে খাদ্য সরবরাহ করে থাকে। আজকের প্রতিবেদনে ব্যবসা টিকিয়ে রাখার জন্য ক্রিস’এর সংগ্রামের কথা তুলে ধরা হয়েছে। (প্রতিবেদনটি প্রথম প্রচারিত হয় চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি।)
ক্রিস অ্যান্ড্রুস ১৯৬৯ সালে নাইজেরিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন। ২৭ বছর বয়সে তিনি জাপানে আসেন।
একটি ভবনের দ্বিতীয় তলায় রয়েছে একটি গীর্জা যেখানে একদল নাইজেরীয় নাগরিক রবিবারের প্রার্থনার আয়োজন করেন। এখানকার অনেক নাইজেরীয় নাগরিক সাইতামা জেলার বিভিন্ন কারখানা ও নির্মাণস্থলে কাজ করেন।
ক্রিস নাইজেরিয়া ছাড়ার পর ২৫ বছর পেরিয়ে গেছে। অনেক জাপানি বন্ধু তাকে সাহায্য করছেন। সমস্যার মুখোমুখি হতে হতে জাপানের প্রতি তার ভালবাসা আগের চেয়ে আরও জোরালো হয়েছে।