পরিবেশ আন্দোলনকারী টেন্ডার - দ্বিতীয় পর্ব: ভবিষ্যত প্রযুক্তি নিয়ে তার ধ্যান-ধারণা
দুই পর্বের এই ধারাবাহিকে অনন্য উপায়ে কাজ করা টেন্ডার নামেও পরিচিত একজন পরিবেশবিদ ইউতা কোযাকি'র কথা তুলে ধরা হবে। টেন্ডার পরিবেশকে দুষিত না করায় সহায়ক প্রযুক্তি হিসেবে আগুন জ্বালানো থেকে ত্রিমাত্রিক প্রিন্টার পর্যন্ত আসলেই ব্যবহার করা যায় এমন বাস্তবজ্ঞানের সমাজে প্রয়োগকে এগিয়ে নেয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আর তা করতে গিয়ে তিনি "বর্তমান কৌশলকে ছাড়িয়ে যাওয়া সৃজনশীলতা" এবং "দক্ষতার উন্নয়ন"এর উপর জোর দিচ্ছেন। দ্বিতীয় পর্বে আমাদের জন্য উপকারী তার প্রস্তাবিত কিছু কৌশলের কথা তুলে ধরা হবে।(প্রতিবেদনটি প্রথম প্রচারিত হয় ৩১ জুলাই)
টেন্ডার "শাকু-কর্ডার" সৃষ্টি করেছেন। এটি একটি রেকর্ডার যার রয়েছে ঐতিহ্যবাহী জাপানি বাঁশি শাকুহাচি'র মুখের অংশ। এই মুখের অংশ একটি ত্রিমাত্রিক প্রিন্টার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। বাদকরা এই রেকর্ডারের রিডে আঙুল দিয়ে জাপানি শব্দ সৃষ্টি উপভোগ করতে পারবেন।
একটি ত্রিমাত্রিক প্রিন্টার উচ্চতা, গভীরতা এবং প্রশস্থতার উপাত্ত (বামে) দিয়ে দিলে একটি বস্তু তৈরি করতে পারে। তিনি এই প্রিন্টার দিয়ে একটি অ্যালুমিনিয়ামের ক্যান কাটার তৈরি করেছেন।
টেন্ডার খোদ আমেরিকানদের ব্যবহার করা পদ্ধতি থেকে আগুন জ্বালানোর উপায় শিখেছেন। বোর্ড এবং কাঠি ঘষে ছোট করে আগুন জ্বালিয়ে তা আঁশের মধ্যে রেখে অক্সিজেন পাঠানোর জন্য বাতাস করুন।
তার কাজের ভিত হচ্ছে বিভিন্ন হাতিয়ার ও থাকার সুবন্দোবস্ত থাকা "ডাইনামিক ল্যাব" যা সবার জন্য উন্মুক্ত।