audio
ওসাকা: রোমাঞ্চকর মহানগরীর স্থাপত্যশৈলী
জাপান ভ্রমণ
15মি. 25সে.

সম্প্রচার তারিখঃ: 22 এপ্রিল, 2021
শোনার মেয়াদঃ 22 এপ্রিল, 2022

পশ্চিম জাপানের বৃহত্তম নগরী ওসাকা হচ্ছে বৈশিষ্ট্যপূর্ণ ভবনের এক মহামূল্যবান সম্পদ যার শুরু ষোড়শ শতাব্দীতে তোইয়োতোমি হিদেইয়োশি শোগুন বা জেনারেলের নির্মিত নগরদুর্গ ওসাকা ক্যাসল। বিংশ শতাব্দীর প্রথমভাগে যখন ওসাকা সংখ্যাগরিষ্ঠ জনসংখ্যার শহর ছিল তখনকার দাই-ওসাকা বা মহা-ওসাকা’র অত্যন্ত কেতাদুরস্ত ভবনগুলো এখনও টিকে রয়েছে। তারপর ১৯৭০ সালে, শহরটি এশিয়ার প্রথম আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর আয়োজন করে। এটি এমন একটি প্রদর্শনী ছিল যে এখনও সবাই “সূর্য টাওয়ার”এর কথা স্মরণ করেন। আমেরিকার একজন স্থপতি জেমস লামবিয়াশি এখানকার ভবনের মাধ্যমে ওসাকার ইতিহাস ও সংস্কৃতিকে নতুন করে আবিষ্কার করেন। (প্রতিবেদনটি প্রথম প্রচারিত হয় ২০২১ সালের ১৪ জানুয়ারি।)

photo স্থপতি জেমস লামবিয়াশি photo “ওসাকা ক্যাসল” মূল দুর্গটি ষোড়শ শতাব্দীর শেষভাগে নির্মাণ করা হয়, তবে এক অগ্নিকাণ্ডে ভস্ম হয়ে যায়। এখন যে ক্যাসলটি রয়েছে এটি ১৯৩০-এর দশকে পুনর্নির্মাণ করা হয়। photo “সূর্য টাওয়ার” নির্মাণ করেন শিল্পীদের পুরোধা ওকামোতো তারো। এই টাওয়ারটি থিম প্যাভিলিয়ন হিসেবে এক্সপো ১৯৭০’এর বিশ্ব মেলার জন্য নির্মাণ করা হয়। photo “ৎসুতেনকাকু টাওয়ার” এই ১০০ মিটার উঁচু ইস্পাতের টাওয়ারটি শিনসেকাই (নতুন বিশ্ব)-এর বিনোদন এলাকার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এবং ওসাকা’র একটি প্রধান প্রতীক।