14মি. 01সে.

আযেকুরা (বৌদ্ধ ধর্মীয় সূত্রের সংগ্রহস্থল) (Azekura)

খ্যাতনামা জাপানি শিল্পকর্ম

সম্প্রচারের তারিখ 9 ফেব্রুয়ারি, 2017 পাওয়া যাবে 31 মার্চ, 2029 পর্যন্ত

টোকিও জাতীয় যাদুঘরের বাগানে ১.৮ মিটার দীর্ঘ দেয়াল সম্বলিত একটি ছোট্ট চারকোণা কুটির প্রদর্শিত হয়ে থাকে। ত্রিকোণাকৃতি কাঠের সন্নিবেশে তথাকথিত "আযেকুরা" রীতিতে এটি নির্মিত। অষ্টম শতকের মূল্যবান সম্পদের ভাণ্ডারগুলো সাধারণত এই রীতিতেই নির্মিত হত। টোকিও জাতীয় যাদুঘরের আযেকুরাটি ১৩শ শতকে নির্মিত এবং শুরুতে এটি ছিল নারা জেলার একটি মন্দিরের অধিভুক্ত স্থাপনা। কিন্তু পরবর্তীতে উনিশ শতকের শেষার্ধে এটিকে টোকিওতে সদ্য নির্মিত যাদুঘরে পুনঃস্থাপনের জন্য নিয়ে আসা হয়। এটি ছিল সেই সময় যখন শিন্তোকে জাপানের রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে পরিগণিত করার সিদ্ধান্ত হয়। আর ফলশ্রুতিতে দেশের নানা প্রান্তে বৌদ্ধ ধর্ম সংশ্লিষ্ট ভবন এবং হস্তনির্মিত সামগ্রীসমূহ ধ্বংস করা হয়। এ পরিস্থিতিতে হিসানারি মাচিদা নামক এক ব্যক্তি সাংস্কৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ এবং একটি যাদুঘর প্রতিষ্ঠার আহ্ববান জানান। মাচিদা পরবর্তীতে জাপানের প্রথম যাদুঘর পরিচালক হয়েছিলেন। ইউরোপ ভ্রমণের সময় তিনি আধুনিক রাষ্ট্রে যাদুঘরের ভূমিকা সম্পর্কে অবগত হন এবং জাপানের সাংস্কৃতিক সম্পদ সংরক্ষণের কাজটি তার নেতৃত্বেই শুরু হয়। এই ছোট্ট “আযেকুরা” সেই কঠিন সময়ে উদ্ধারকৃত মূল্যবান সম্পদের একটি।

photo

অনুষ্ঠানের রূপরেখা