15মি. 00সে.

প্রাচীন ও আধুনিক জাপানি কবিতা সংগ্রহের কোওইয়া খণ্ড, স্ক্রোল ১৯ (Kokin Wakashu "Koyagire")

খ্যাতনামা জাপানি শিল্পকর্ম

সম্প্রচারের তারিখ 21 জানুয়ারি, 2016 পাওয়া যাবে 31 মার্চ, 2029 পর্যন্ত

দশম এবং একাদশ শতাব্দীতে চীনা সংস্কৃতির প্রভাবে উজ্জীবিত হয়ে জাপানে বিশেষ ধারার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য গড়ে উঠতে দেখা যায়। সেই যুগের একটি প্রতিনিধিত্বশীল শিল্পকর্ম হল, কোকিন ওয়াকাশু– "প্রাচীন এবং আধুনিক ওয়াকা কাব্য সংকলন" যা মূলত ওয়াকা নামে পরিচিত জাপানি ধাচে লেখা কবিতা সমগ্র। ওয়াকা লেখার সবচাইতে প্রকৃষ্ট উপায় ছিল, চীনা অক্ষরের সরলীকরণের ফলে তৈরি হিরাগানা বর্ণের ব্যবহার। এই প্রতিবেদনে যে শিল্পকর্ম সম্পর্কে তুলে ধরা হয়েছে তা মূলত এসেছে একাদশ শতাব্দীর একটি কোকিন ওয়াকাশু’র কপি থেকে। হিরাগানা ব্যবহার করে লিখিত ক্যালিগ্রাফির সর্বোৎকৃষ্ট উদাহরণ হিসেবে এটিকে বিবেচনা করা হয়। সূক্ষ্ম অভ্র কণা মেশানো চিকচিকে কাগজের উপর সরু তুলির আঁচড়ে আঁকা পরষ্পর সংযুক্ত অক্ষরমালা উপর থেকে নিচে চলে গিয়েছে, এবং এ রকম কয়েক ডজন রেখা ডান দিক থেকে ক্রমশ বামে চলে গিয়েছে এই ক্যালিগ্রাফি শিল্পকর্মে। ধারণা করা হয় যে, যিনি এই ক্যালিগ্রাফি এঁকেছিলেন তিনি অভিজাত শ্রেণির কোন ব্যক্তি ছিলেন। এই ক্যালিগ্রাফি শিল্পকর্মটিকে বর্তমান যুগে জাপানে ব্যবহৃত হিরাগানা বর্ণের মূল দলিল হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ইতিহাসের যে পর্যায়ে রোল করে মুড়ে রাখার কাগজে আঁকা এসব স্ক্রোল শিল্পকর্ম স্তুতি জ্ঞাপনের লক্ষ্যে খণ্ডিত করা হত, তার প্রতি দৃষ্টি ফেরানোর মাধ্যমে জাপানি ধাঁচের ক্যালিগ্রাফির সৌন্দর্য আবিষ্কারের চেষ্টা করা হয়েছে এই প্রতিবেদনে।

photo

অনুষ্ঠানের রূপরেখা