দক্ষিণ কোরিয়ায় কোভিড-১৯’র দৈনিক সংক্রমণ রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছেছে

দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রথমবারের মত করোনাভাইরাসের দৈনিক সংক্রমণ ৪ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী আভাস দিয়েছেন যে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী জরুরি নিষেধাজ্ঞা পুনরায় জারি করা হতে পারে।

মঙ্গলবার দক্ষিণ কোরীয় সরকার ৪ হাজার ১শো ১৫টি নতুন সংক্রমণ নিশ্চিত করেছে। এই সংখ্যা নভেম্বর মাসের ১৭ তারিখের এর আগের দৈনিক রেকর্ডের থেকে আটশরও বেশি।

গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যাও এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৫শো ৮৬ জনে পৌঁছেছে।

আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়া রাজধানী সওল এবং এর আশপাশের এলাকায় হাসপাতালগুলোর নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের ৮০ শতাংশের বেশি পূর্ণ রয়েছে।

সরকার বৃহত্তর সওল এলাকার জন্য ঝুঁকির সীমা পাঁচ মাত্রার পরিমাপকের সর্বোচ্চ সীমা “খুবই উচ্চ” ঝুঁকিপূর্ণ বলে বর্ণনা করেছে।

চলতি মাসের শুরুতে সরকারের করোনাভাইরাস প্রতিরোধ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার মধ্য দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়া স্বাভাবিক দৈনিক কার্যক্রম শুরু করেছিল। দেশটির টিকা গ্রহণের হার ৭৯ দশমিক ১ শতাংশ।

বিশেষজ্ঞরা সংক্রমণের বৈশিষ্ট্য দেখে লক্ষ্য করছেন যে প্রধানত বয়স্ক লোকজন, টিকাদান কর্মসূচির শুরুতে যারা টিকা নিয়েছিলেন এবং টিকা না নেয়া শিশুদের মধ্যে সংক্রমণের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বুধবার প্রধানমন্ত্রী কিম বু-কিয়াম বলেছেন যে রাজধানীসহ এর আশপাশের এলাকার পরিস্থিতি দ্রুত একটি জরুরি পরিকল্পনা জারি বিবেচনা করে দেখার মত পর্যাপ্ত মাত্রায় সঙ্কটাপন্ন।