জিএসডিএফ দৃশ্যত মিয়াকোজিমা’য় ক্ষেপণাস্ত্র স্থানান্তর করেছে

জাপানের স্থল আত্মরক্ষা বাহিনী ওকিনাওয়া জেলার এক দ্বীপের একটি নতুন নির্মিত অস্ত্রাগারে স্থানীয় বাসিন্দাদের বিক্ষোভের মাঝে ক্ষেপণাস্ত্র বলে মনে করা যুদ্ধাস্ত্র স্থানান্তর করেছে।

গতকাল রবিবার স্থলভাগ থেকে জাহাজে নিক্ষেপযোগ্য বলে মনে করা কিছু ক্ষেপণাস্ত্র বহনকারী ১০টিরও বেশি যান একটি জাহাজ থেকে মিয়াকোজিমা দ্বীপের এক বন্দরে নামানো হয়।

প্রায় ২০ জন বিক্ষোভকারী গাড়িগুলো নামানোর প্রতিরোধের চেষ্টায় ঐ বন্দরে সমবেত হলেও পুলিশ তাদের জোরপূর্বক সরিয়ে দেয়।

গাড়িগুলো এরপরে স্থল আত্মরক্ষা বাহিনীর একটি অস্ত্রাগারে এসে পৌছায় এবং ঐ মালামাল সেখানে নামিয়ে দেয়। ৩০ জনেরও বেশি লোক এর প্রতিবাদে শ্লোগান দেয়।

একজন স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, ঐ অস্ত্রাগারটি একটি আবাসিক এলাকার খুব কাছে হওয়ায় তিনি একটি সম্ভাব্য বিস্ফোরণ নিয়ে খুব উদ্বিগ্ন।

উল্লেখ্য, জাপানের স্থল আত্মরক্ষা বাহিনী মিয়াকো এবং ইশিগাকি’সহ দেশের দক্ষিণপশ্চিমের দ্বীপগুলোতে ক্ষেপণাস্ত্র ইউনিট মোতায়েন করে চলেছে। তাদের ভাষ্যানুযায়ী, এই পদক্ষেপ ঐ অঞ্চলে চীনের সামুদ্রিক তৎপরতা বৃদ্ধি পাওয়ার মাঝে প্রতিরক্ষা সক্ষমতা জোরদারকরণ প্রচেষ্টার একটি অংশ।