ফৌজদারি অভিযোগ দাখিল করেছে শ্রীলংকার নারীর পরিবার

জাপানের একটি অভিবাসন স্থাপনায় মারা যাওয়া শ্রীলংকার নারীর পরিবার, সাবেক জ্যেষ্ঠ অভিবাসন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে সেই নারীকে হত্যার অভিযোগ এনে এক ফৌজদারি অভিযোগ দাখিল করেছে।

উইশমা সান্দামালি মার্চ মাসে মধ্য জাপানের নাগোইয়ার এক অভিবাসন স্থাপনায় ৩৩ বছর বয়সে মারা যান। ভিসার সময়সীমা পেরিয়ে যাওয়ার পরেও দেশে থাকার অভিযোগে তাকে আটক করা হয়েছিল।

অভিবাসন সেবা এজেন্সি আগস্ট মাসে চূড়ান্ত এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে যেখানে আটক করা লোকজনকে যথার্থ চিকিৎসা সেবা প্রদান করার ব্যবস্থা সেই স্থাপনার ছিল না বলে তারা স্বীকার করে নেয়। তবে তার পরিবার তার মৃত্যুর পর্যাপ্ত ব্যাখ্যা হিসাবে এই প্রতিবেদনটিকে গ্রহণ করছে না।

উইশমা’র বোন পূর্ণিমা এবং পরিবারের পক্ষে একজন আইনজীবী মঙ্গলবার নাগোইয়া জেলা সরকারি কৌঁসুলিদের দপ্তরে ঐ অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অভিযোগে তারা উল্লেখ করেছেন যে নাগোইয়ার আঞ্চলিক অভিবাসন সেবা ব্যুরোর তৎকালীন প্রধান সহ কমপক্ষে সাত ব্যক্তি, উইশমা তার অসুস্থতার বিষয়টি জানালেও যথাযথ চিকিৎসা সেবা ছাড়াই তাকে আটক করে রাখা অব্যাহত রাখেন কেননা উইশমা মারা গেলেও তাদের কিছু এসে যেত না।

প্রশ্নের জবাব দেয়ার মত কোনো অবস্থান তাদের নেই উল্লেখ করে আঞ্চলিক ব্যুরো কোন মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।