পাকিস্তান এবং স্থানীয় তালিবানরা যুদ্ধবিরতিতে সম্মত

পাকিস্তানের সরকার জানিয়েছে যে, তারা সেদেশের চরমপন্থী ইসলামী জঙ্গিদের সাথে মাসব্যাপী যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে। এই মতৈক্য প্রতিবেশী দেশ আফগানিস্তানের তালিবানদের মধ্যস্থতায় সম্পন্ন হয়।

পাকিস্তানের সরকার সোমবার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে এ ঘোষণা দেয়।

তারা জানায়, আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তীকালীন তালিবান সরকার পাকিস্তানের তালিবানদের সাথে যুদ্ধবিরতিতে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করেছে।

পাকিস্তানের তালিবানরাও এই বলে এক বিবৃতি প্রকাশ করেছে যে, এই যুদ্ধবিরতি মঙ্গলবার থেকে ডিসেম্বের মাসের ৯ তারিখ পর্যন্ত চলবে এবং দু’পক্ষ রাজি থাকলে বর্ধিতও করা যেতে পারে।

আফগানিস্তানের তালিবানদের সহযোগিতা করার জন্য ২০০৭ সালে পাকিস্তানের তালিবান গঠিত হয়। এর সদস্যরা পাকিস্তান সরকার এবং মার্কিন লক্ষ্যবস্তুর উপর বার বার হামলা চালায়।

২০১২ সালে, এই গোষ্ঠীটি মালালা ইউসাফযাই’কে গুলি করে মারাত্মকভাবে আহত করে। তিনি তখন ছিলেন মাত্র ১৪ বছর বয়সী একজন স্কুল ছাত্রী এবং নারী শিক্ষার পক্ষে প্রচার চালানো এক কর্মী।

এই গোষ্ঠীটি আফগানিস্তানের তালিবানদের সাথে জোট বেধেছে বলে বলা হয়ে থাকে।

একটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে পাকিস্তানের একটি সংবাদপত্র জানিয়েছে যে, এই যুদ্ধবিরতি মতৈক্যের মধ্যস্থতা করেন একজন কট্টরপন্থী এবং আফগান অন্তর্বর্তী সরকারের ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিরাজুদ্দিন হাক্কানি।