চীনকে পারমাণবিক অস্ত্র সংক্রান্ত সংলাপে যোগ দিতে আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

বেইজিংয়ের পরমাণু উচ্চাকাঙ্ক্ষা নিয়ে উদ্বেগ ব্যক্ত করে মার্কিন সরকার চীনকে পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত একটি আলোচনায় যোগ দিতে আহ্বান জানিয়েছে।

বুধবার মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ চীনের সামরিক অগ্রগতি সংক্রান্ত বার্ষিক রিপোর্ট প্রকাশ করে। এই রিপোর্টে পূর্বাভাস করা হয় যে ২০৩০ সালের মধ্যে চীনের পরমাণু ওয়ারহেডের সংখ্যা ১ হাজারে পৌঁছাতে পারে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রিপোর্ট থেকে এই আভাসই মিলছে যে সীমিত হারে নিবারক শক্তি গড়ে তোলার যে পারমাণবিক নীতি চীনের ছিল, তা থেকে দেশটি এখন সরে আসছে।

প্রাইস আরও বলেন, রাশিয়ার সাথে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের একটি নতুন কাঠামোর বিষয়ে আলোচনার জন্য কৌশলগত সংলাপ উপকার বয়ে এনেছে। তিনি বলেন, ওয়াশিংটন চীনের সঙ্গেও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত সংলাপে যুক্ত হতে চায়।

তিনি জোর দিয়ে বলেন, পারমাণবিক অস্ত্রধারী সব দায়িত্বশীল দেশসমূহের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত সংলাপে যুক্ত হওয়া উচিত।

একটি সুইডিশ গবেষণা সংস্থার রিপোর্টে বলা হয়েছে, এ বছরের জানুয়ারি মাস পর্যন্ত যা হিসেব তাতে পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বেশি পারমাণবিক ওয়ারহেড আছে রাশিয়ার কাছে, যে সংখ্যাটি হোল ৬ হাজার ২শো ৫৫। রিপোর্টে বলা হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে আছে ৫ হাজার ৫শো ৫০টি পারমাণবিক ওয়ারহেড আর চীনের কাছে আছে ৩শো ৫০টি।