ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানির উদ্বেগ

যুক্তরাষ্ট্র এবং তাদের তিনটি ইউরোপীয় মিত্রদেশের নেতারা, ইরানের পরমাণু কর্মসূচি ত্বরান্বিত করা নিয়ে অভিন্ন উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তারা ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তিটি পুনরুজ্জীবিত করার জন্য পদক্ষেপ নিতে ইরানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং তার ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানির প্রতিপক্ষরা, শনিবার একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করেন।

বিবৃতিতে বলা হয় যে তারা এই মর্মে তাদের “গভীর ও ক্রমবর্ধমান উদ্বেগ” ভাগাভাগি করে নিয়েছেন যে ইরান গত জুন থেকে চুক্তিতে ফেরার আলোচনা স্থগিত রাখার পাশাপাশি একই সময়ে “উচ্চ সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের উৎপাদনের মত উস্কানিমূলক পরমাণু পদক্ষেপের গতি ত্বরান্বিত করে নিয়েছে।”

বিবৃতিতে এটিও বলা হয়েছে যে চুক্তিটি মেনে চলার পর্যায়ে ফিরে গেলে নিষেধাজ্ঞাগুলো তুলে নেয়া হবে এবং এটি “ইরানের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির উপর দীর্ঘস্থায়ী ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে ।” এতে এও উল্লেখ করা হয় যে ইরানের গতিপথ পরিবর্তনই শুধুমাত্র এটিকে সম্ভবপর করবে। নেতৃবৃন্দ এরপর, ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির প্রতি এই সুযোগ গ্রহণ করার পাশাপাশি আলোচনা সম্পন্নের জন্য “আন্তরিক বিশ্বাসের প্রচেষ্টায়” ফিরে আসার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, ইরান ইঙ্গিত দিয়েছে যে নভেম্বরের শেষের দিকে তারা যুক্তরাষ্ট্রের সাথে আলোচনা শুরু করবে।