২০২২ সালের মাঝামাঝি নাগাদ বিশ্বের ৭০ শতাংশ জনগোষ্ঠীকে টিকাদানের লক্ষ্য জি-২০’র

বিশ্বের ২০টি বৃহৎ অর্থনীতির জোট জি-২০’র নেতৃবৃন্দ, উন্নয়নশীল দেশগুলোতে করোনাভাইরাসের টিকার সরবরাহ ত্বরান্বিত করার প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তারা এটি নিশ্চিত করার প্রত্যাশা করছেন যে, ২০২২ সালের মাঝামাঝি নাগাদ বিশ্বের মোট জনগোষ্ঠীর ৭০ শতাংশকে পুরোপুরি টিকাদান সম্পন্ন করা যাবে।

শনিবার নেতৃবৃন্দ, ইতালির রোমে তাদের দু’দিনব্যাপী এই শীর্ষ বৈঠক শুরু করেছেন।

বিশ্ব অর্থনীতিতে জ্বালানি তেলের উচ্চ মূল্য এবং সরবরাহ ব্যাহত হওয়ার প্রভাব সম্পর্কিত ক্রমবর্ধমান উদ্বেগের মাঝে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রসমূহ জানাচ্ছে যে, নিজেদের প্রথম দিনের আলোচনায় অনেক অংশগ্রহণকারী, বৈশ্বিক মহামারী থেকে বিশ্ব অর্থনীতির পুনরুদ্ধারের জন্য একত্রে কাজ করার প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি ব্যক্ত করেন।

নেতারা এই ব্যাপারেও একমত হন যে বৈশ্বিক মহামারী থেকে পুরোপুরি ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য টিকার প্রাপ্যতার ক্ষেত্রে শিল্পোন্নত এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে বৈষম্য দূর করা অপরিহার্য।

এছাড়া, একটি মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে নূন্যতম কর্পোরেট করের হার নির্ধারণ নিয়ে হওয়া একটি মতৈক্যের বিষয়ও তারা পুনঃনিশ্চিত করেন। ঐ চুক্তিতে বৃহৎ কোম্পানিগুলো যাতে তাদের করের ন্যায্য অংশ পরিশোধ করে, সেই বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।