পূর্ব এশিয়া শীর্ষ বৈঠকে প্রাধান্য পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র-চীন বিভেদ

এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগর অঞ্চলের দেশগুলোর এক বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের নেতারা দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ে জড়িত হন।

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার রাষ্ট্রসমূহের নেতারা দক্ষিণ চীন সাগর ও অন্যান্য সমস্যা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে সংঘাত গভীর হতে থাকায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার রাষ্ট্রসমূহের জোট আসিয়ানের সদস্য, জাপান, যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও অন্যান্যদের জড়িত করে পূর্ব এশিয়া শীর্ষ বৈঠকের অনলাইন একটি সমাবেশ বুধবার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দক্ষিণ চীন সাগরে বেইজিং সমুদ্র তৎপরতা জোরদার করে নিতে থাকায় সেটা ছিল প্রধান একটি বিষয়। ভারত-প্রশান্ত মহাসাগর অঞ্চলে চীনকে মোকাবিলা করার জন্য অস্ট্রেলিয়া ও ব্রিটেনকে জড়িত করে অকাস নামে পরিচিত একটি নিরাপত্তা কাঠামো যুক্তরাষ্ট্র গড়ে নিয়েছে।

বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন দৃশ্যত চীনের ধারণা মাথায় রেখে শৃঙ্খলা ভিত্তিক আন্তর্জাতিক নিয়মাবলীর উপর দেখা দেয়া হুমকি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। গণতন্ত্র, মানবাধিকার, আইনের শাসন ও সমুদ্র চলাচল স্বাধীনতার সমর্থনে মিত্র ও অংশীদারদের পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার বাইডেন করেছেন।

চীনের শিনহুয়া বার্তা সংস্থা খবর দিয়েছে যে চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেচিয়াং জবাবে বলেছেন, চীন ও আসিয়ানের সদস্যদের সম্মিলিত প্রচেষ্টার কল্যাণে দক্ষিণ চীন সাগরের পরিস্থিতিতে সার্বিক স্থিতিশীলতা বজায় আছে। তিনি এরকম বলেন বলে খবর পাওয়া গেছে যে সমুদ্র চলাচল স্বাধীনতা নিয়ে কোন সমস্যা নেই।