সংক্রমণ রোধে সান্ধ্য আইন জারী করা হল ভারতের রাজধানীতে

ভারতের রাজধানী নতুন দিল্লীতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে আনার এক প্রচেষ্টা হিসাবে সান্ধ্য আইন জারী করা হল।

ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ থেকে ভারতকে সংক্রমণের অপর এক ঢেউ সামাল দিতে হচ্ছে। স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানাচ্ছে যে গত সোমবার দেশে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়ে যায়। এই সংখ্যা হল এযাবতকালের মধ্যে সর্বোচ্চ।

নতুন দিল্লীর কর্মকর্তারা জানান যে ঐ একই দিন শহরে নতুন ভাবে আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজার ছাড়িয়ে গেছে। গত সপ্তাহের তুলনায় এই সংখ্যা হল দ্বিগুণ।

স্থানীয় সরকার ঘোষণা দিয়েছে যে এপ্রিল মাসের ৩০ তারিখ পর্যন্ত রাত দশটা থেকে ভোর পাঁচটার মধ্যে বাহিরে যাওয়া সীমাবদ্ধ করা হবে।

তবে স্বাস্থ্যকর্মীদের ঐ নিষেধাজ্ঞা থেকে অব্যাহতি দেয়া হবে।

গত বছর মার্চ মাসের পর থেকে এই প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সান্ধ্য আইন জারী করল রাজধানী।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধকারী পদক্ষেপ জোরদার করে নিচ্ছে শহরটি এবং টিকাদান প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করে তুলতে শহরের কয়েকটি টিকা কেন্দ্র ২৪ ঘন্টা খোলা রাখা হবে।