তাইওয়ানের ট্রেন লাইনচ্যূত হওয়ার ঘটনায় একজন ট্রাক চালক আটক

তাইওয়ানের ইতিহাসে সবচেয়ে মারাত্মক ট্রেন লাইনচ্যূত হওয়ার দুর্ঘটনার জন্য দায়ী বলে মনে করা একজন ট্রাক চালককে দু’মাসের জন্য আটক করা হবে।

একটি আদালত রবিবার রাতে কৌঁসুলিদের করা এই অনুরোধটি মঞ্জুর করে। আদালতের ভাষ্যানুযায়ী, অসতর্কতার কারণে মৃত্যুর কারণ হওয়ার জন্য সন্দেহভাজন এই চালক হয়তো সাক্ষ্য-প্রমাণ লোপাট করে ফেলতে পারেন।

আদালতে তাকে ডেকে পাঠানোর আগে, এই পুরুষ ট্রাক-চালক সাংবাদিকদের একটি বিবৃতি পাঠ করে শোনান।

লি ইই-হিসিয়াং বলেন, “আমি অত্যন্ত দুঃখিত যে, মৃত্যু ও আহত হওয়ার মত ঘটনা ঘটিয়ে আমি লোকজনকে ঝামেলায় ফেলেছি। আমি আন্তরিকভাবে গভীর দুঃখ প্রকাশ করতে চাই”।

লি এও বলেন, তিনি তদন্তের সাথে সহযোগিতা করবেন এবং এর দায়দায়িত্ব নেবেন।

সংঘর্ষের এই দুর্ঘটনা একটি ব্যস্ত ছুটির সপ্তাহান্তের শুরুতেই ঘটে। এই দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ৫০ জন নিহত এবং ২০০ জনেরও বেশি আহত হন।

তাইওয়ানের পরিবহণ নিরাপত্তা বোর্ড ট্রেনে সংযোজিত ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিওচিত্র বিশ্লেষণ করে দেখছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, পরিষদ এখন পর্যন্ত নির্ধারণ করেছে যে, ট্রেনের সাথে সংঘর্ষের আগে ট্রাকটি একটি ঢালে পিছলে যায় এবং রেললাইনের উপরে গিয়ে পড়ে।

তদন্তকারীরা সন্দেহ করছেন, ট্রাকের পার্কিং ব্রেক হয়তো ভেঙ্গে গিয়ে থাকতে পারে বা সেটিকে ঠিকভাবে কাজে লাগানো হয়নি। ঐ ট্রাক চালক ঢালের নিরাপত্তার উন্নয়ন কাজের সাথে জড়িত ছিলেন।