চতুর্থ তরঙ্গ এখনও শুরু না হলেও সতর্কতার প্রয়োজন রয়েছেঃ জাপানি প্রধানমন্ত্রী

জাপানের প্রধানমন্ত্রী সুগা ইয়োশিহিদে বলেছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বৃদ্ধি এখনও দেশব্যাপী একটি চতুর্থ তরঙ্গের পর্যায়ে না পৌঁছালেও, অতিরিক্ত সতর্কতার প্রয়োজন রয়েছে।

আজ সোমবার সংসদের উচ্চকক্ষের অডিট কমিটির এক অধিবেশনে একজন বিরোধী দলীয় আইনপ্রণেতার প্রশ্নের জবাবে সুগা এই মন্তব্য করেন।

কন্সটিটিউশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির কোগা ইউকিহিতো, সংক্রমণের একটি চতুর্থ তরঙ্গের সম্ভাবনা নিয়ে সুগার দৃষ্টিভঙ্গি কেমন, সেসম্পর্কে তার কাছে জানতে চান।

সুগা বলেন, পশ্চিমের দু’টি জেলায় সংক্রমণ আবারও বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, টোকিও এবং এর পার্শ্ববর্তী তিনটি জেলায়ও লোকজনের চলাচল তীব্রভাবে বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে।

তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতি এখনও দেশব্যাপী সংক্রমণের এমন কোন ব্যাপক বৃদ্ধির পর্যায়ে পৌঁছায়নি যে এটিকে একটি চতুর্থ তরঙ্গ বলে অভিহিত করা যেতে পারে। তবে, এই সমস্যা সামাল দেয়ার জন্য সতর্কতার জোরালো অনুভূতির প্রয়োজন আছে।

সরকারের করোনাভাইরাস মোকাবিলা বিষয়ক পরামর্শক প্যানেলের প্রধান ওমি শিগেরু ভাইরাস-রোধী পদক্ষেপ নেয়ার ক্ষেত্রে ক্রমবর্ধমান সমস্যার দিকে দিকনির্দেশ করেন।

ওমি বলেন, ভাইরাসের নিয়ন্ত্রণে আচরণে পরিবর্তন আনার জন্য জনগণের সহযোগিতা পাওয়া অপেক্ষাকৃত কঠিন হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, সম্প্রতি লোকজনের চলাচলেরও উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি ঘটেছে।

ওমি আরও বলেন, আরেকটি সমস্যা হল ভাইরাসের নতুন স্ট্রেইনসমূহ দ্বারা সংক্রমণের ঘটনার ক্রমাগত বৃদ্ধি, যার মধ্যে টোকিওর উদাহরণগুলোও অন্তর্ভুক্ত আছে।

ওমি বলেন, বৃহত্তর টোকিও এলাকার উপর থেকে জরুরি অবস্থা তুলে নেয়ার পরে লোকজনের চলাচলের বৃদ্ধির প্রভাব আগামী এক থেকে দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রকাশ পেতে শুরু করবে।

তিনি বলেন, রাজধানীর পরিস্থিতি ওসাকার কাছাকাছি চলে যেতে পারে। ওমি আরও বলেন, ঠিক কোন ধরনের কার্যকর প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপ নেয়া যেতে পারে, এখন সেটি নিয়ে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করার সময়।