হংকং’এ গণতন্ত্রের প্রবক্তাদের দোষী সাব্যস্ত করার ঘটনাকে ধিক্কার জানালো যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র হংকং’এ গণতন্ত্রের সাত জন প্রবক্তাকে দোষী সাব্যস্ত করার সর্বসাম্প্রতিক ঘটনার তীব্র নিন্দা করে বলেছেন এই ঘটনায় বোঝায় যায় ভূখন্ডটিতে স্বাধীনতার ক্ষয় হয়ে যাচ্ছে।

হংকং’এর একটি আদালত ২০১৯ সালের আগস্টে সরকার বিরোধী প্রতিবাদ বিক্ষোভে জড়িয়ে অননুমোদিত সমাবেশের দায়ে সাত জনকে দোষী সাব্যস্ত করার পর বৃহস্পতিবার নেড প্রাইস সাংবাদিকদের কাছে একথা বলেন। এই সাত ব্যক্তি বহু বছর যাবৎ গণতন্ত্রপন্থী আন্দোলনের সাথে যুক্ত আছেন।

প্রাইস বলেন চীন এবং হংকং’এর কর্তৃপক্ষ যে “শান্তিপূর্ণ ভাবে ভিন্ন মত পোষণ” দমন করতে চায়, আদালতের রায় সেকথাই প্রমাণ করে।

তিনি আদালতের এই রায়কে কর্তৃপক্ষগুলোর “হংকং’এর স্বাধীনতার ক্ষয় সাধনের আরেকটি নিদর্শন” বলে আখ্যায়িত করেন।

প্রাইস বলেন হংকং’এর লক্ষ লক্ষ মানুষ যারা তাদের স্বায়ত্তশাসন ও স্বাধীনতার অধিকারকে রক্ষা করার জন্য শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন তাদের পাশে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থাকবে সব সময়।

তিনি আরও বলেন চীন এবং হংকং’এর কর্তৃপক্ষকে এর জন্যে দায়ী করা যুক্তরাষ্ট্র অব্যাহত রাখবে। তার এই মন্তব্য থেকে আভাস মিলছে যুক্তরাষ্ট্র পাল্টা পদক্ষেপ নিতে পারে।