সুয়েজ খালের প্রতিবন্ধকতা নিয়ে তদন্ত শুরু হতে যাচ্ছে

মিশরের সুয়েজ খালে সোমবার বিকেল পর্যন্ত একটি বিশাল মালবাহী জাহাজের কারণে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়া নিয়ে শীঘ্রই একটি তদন্ত শুরু হবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

আটকে পড়া জাপানের মালিকানাধীন জাহাজ “এভার গিভেন”কে সরানোর পরে ছয় দিনের মধ্যে এবারই প্রথম ঐ খালের ভেতর দিয়ে জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে। তাইওয়ানের একটি কোম্পানি ঐ জাহাজটি পরিচালনা করে।

বেসরকারি জাহাজ-অনুসরণ ওয়েবসাইট ভেসেল ফাইন্ডার দেখাচ্ছে যে ঐ খালে বা আশেপাশে আটকে থাকা জাহাজগুলো চলতে শুরু করেছে। তবে, সুয়েজ খাল কর্তৃপক্ষ বলছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যেতে বেশ কয়েক দিন লেগে যেতে পারে।

সুয়েজ খাল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ওসামা র‍্যাবিয়ে এই আভাস দেন যে এই বিষয়ে শীঘ্রই একটি তদন্ত শুরু হতে যাচ্ছে। তিনি সাংবাদিকদের বলেন যে এই তদন্তের মাধ্যমে দুর্ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের সনাক্ত করার পাশাপাশি কোন কোন পক্ষকে এর জন্য ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, সেটিও নির্ধারণ করা হবে।

বিশ্বের অন্যতম এই ব্যস্ততম বাণিজ্য পথে ছয়দিনের এই প্রতিবন্ধকতা, বৈশ্বিক মালামাল সরবরাহের উপর প্রভাব ফেলেছে এবং এই খালের টোল থেকে আসা রাজস্বের উপর অনেক বেশি নির্ভরশীল মিশরীয় সরকারেরও উল্লেখযোগ্য ক্ষতি করেছে।