মিয়ানমার পরিস্থিতির নিন্দা জানিয়েছে জাপান

জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী মোতেগি তোশিমিৎসু মিয়ানমারে ক্রমবর্ধমান সংখ্যক বেসামরিক লোকের মৃত্যু নিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছেন।

এতে বলা হয়েছে, জাপান সরকার “মিয়ানমারের পরিস্থিতির তীব্র নিন্দা জানায়, যেখানে বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে দেশটির সামরিক এবং পুলিশ বাহিনীর শক্তি প্রয়োগ অব্যাহত রয়েছে, যার কারণে দেশটিতে অধিক সংখ্যক মৃত্যুর পাশাপাশি আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে এবং ২৭শে মার্চ একদিনেই সর্বোচ্চ সংখ্যক লোকের মৃত্যু হয়েছে।”

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে গুলিবর্ষণ, বন্দীদের প্রতি অমানবিক আচরণ এবং গণমাধ্যমের কার্যক্রমের উপর কঠোর দমনাভিযান” হচ্ছে “গণতন্ত্রের গুরুত্ব নিয়ে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর দেয়া আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বিরুদ্ধ কর্মকাণ্ড।”

বিবৃতিতে সামরিক নেতৃত্বের কাছে এটি স্মরণে আনার আহ্বান জানানো হয় যে সামরিক বাহিনী হচ্ছে “বিদেশি হুমকির হাত থেকে নিজের দেশের জনগণকে সুরক্ষা দেয়ার জন্য একটি সংস্থা।”

বিবৃতিটিতে আরও উল্লেখ করা হয়, জাপান সরকার আবারও মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর প্রতি অবিলম্বে বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে সহিংসতার পথ অবলম্বন বন্ধ করা, জাতীয় পরামর্শক অং সান সুচি’সহ অন্যদের মুক্তি দেয়া এবং দ্রুত মিয়ানমারের গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক ব্যবস্থাকে পুনরুদ্ধার করার জন্য জোরালো আহ্বান জানাচ্ছে।