উত্তর কোরিয়ার “ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের” গুরুত্ব খর্ব করে দেখছে যুক্তরাষ্ট্র

উত্তর কোরিয়া গত রবিবার দুটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে বলে খবরে জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আভাস দিয়েছেন যে এই নিক্ষেপকে তিনি নতুন উস্কানি হিসেবে গণ্য করছেন না।

দক্ষিণ কোরিয়ার একটি সামরিক সূত্র বলছে রবিবার খুব ভোরে উত্তর কোরিয়া পশ্চিমের দক্ষিণ পিয়ংআন প্রদেশের ওনচনের কাছের একটি স্থান থেকে দুটি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে বলে মনে হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ মাধ্যম মার্কিন সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানায় যে তারা বলেছেন উত্তর কোরিয়া স্বল্প পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে।

তবে বাইডেন পিয়ংইয়াংয়ের সেই কর্মকাণ্ডের গুরুত্ব খর্ব করে দিয়ে বলেছেন “কোনকিছুর তেমন কোন বদল হয়নি।” ওই তৎপরতা উস্কানি ছিল কি না, সাংবাদিকদের সেই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেছেন, “না, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ভাষ্য অনুযায়ী সেটা হচ্ছে স্বাভাবিক ঘটনা” এবং “তারা যেটা করেছে তাতে নতুন কোন ভাঁজ পড়েনি।”

বাইডেন প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এক টেলিফোন ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেছেন যে সেই নিক্ষেপ ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ন্ত্রণ করা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবের আওতায় পড়ে না।

সেই পদক্ষেপকে তারা স্বাভাবিক কর্মকাণ্ডের শ্রেণীভুক্ত তৎপরতা হিসেবে দেখছেন এবং ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপকে উস্কানিমূলক কর্মকাণ্ডের তালিকার নিচের দিকে অবস্থান করা হিসেবে গণ্য করছেন।

কর্মকর্তারা বলেছেন বিষয়টিকে বাড়িয়ে দেখা নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করবে না বলে তাদের বিশ্বাস। যা ঘটেছে সেটাকে তারা সংলাপের দুয়ার বন্ধ করে দেয়া হিসেবে গণ্য করছেন না এবং পিয়ংইয়াং যেখানে যুক্তরাষ্ট্রকে আলোচনার জন্য উন্মুক্ত নয় হিসেবে দেখবে, সেরকম পরিস্থিতি তারা তৈরি করতে চাইছেন না।