জাপানে স্ট্রেপ্টোকোক্কাল টক্সিক শক সিনড্রোম থেকে গর্ভবতী মহিলাদের মৃত্যু

এনএইচকে জানতে পেরেছে যে জাপান সরকার কোভিড-১৯ কে মৌসুমী ফ্লু'র সমপর্যায়ে নামিয়ে আনার পর এই বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত নয় মাসের মধ্যে স্ট্রেপ্টোকোক্কাল টক্সিক শক সিনড্রোম বা এসটিএসএস-এ আক্রান্ত হয়ে পাঁচজন গর্ভবতী মহিলার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

সেন্ট মারিয়ানা ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ মেডিসিনের অধ্যাপক হাসেগাওয়া জুনইচি অন্তর্ভুক্ত থাকা একটি গ্রুপ ২০১০ সালের জানুয়ারি থেকে এই বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত সময়ের মধ্যে এসটিএসএস-এর কারণে মারা যাওয়া গর্ভবতী মহিলাদের ঘটনাগুলো বিশ্লেষণ করেছে।

সেই বিশ্লেষণ অনুসারে, করোনভাইরাস মহামারি শুরু হওয়ার আগে প্রতি বছর এসটিএসএস সংক্রমণের কারণে মৃত গর্ভবতী মহিলাদের প্রায় এক থেকে পাঁচটি ঘটনার খবর পাওয়া যেত।

২০২০ সাল থেকে ২০২৩ সালের জুন মাস পর্যন্ত প্রায় তিন বছরের মধ্যে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা কার্যকর থাকার সময় এই ধরনের মৃত্যুর কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

তবে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা শিথিল করার পর গত বছরের জুলাই থেকে এই বছরের মার্চের মধ্যে পাঁচজন গর্ভবতী মহিলার মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা শিথিল করার পর মৃতের খবর পাওয়া গেছে উল্লেখ করে হাসেগাওয়া বলেন, মাস্ক পরা এবং হাত ধোয়া সহ বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংক্রমণ হয়তো প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়েছিল।

হাসেগাওয়া বলেন, গুরুতর রোগের ঘটনা বিরল থাকার কারণে অতিরিক্ত উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। তিনি এই প্রত্যাশাও ব্যক্ত করেন যে কেবল গর্ভবতী মহিলারাই নয়, তাদের সাথে বসবাসকারী পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও মাস্ক পরা এবং হাত ধোয়া'সহ প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।