নতুন নাগরিকত্ব লাভ করা ১০ হাজার ব্যক্তিকে ইউক্রেনের যুদ্ধ ফ্রন্টে পাঠিয়েছে রাশিয়া

ঊর্ধ্বতন একজন রুশ কর্মকর্তা বলেছেন যে, রাশিয়ার নাগরিকত্ব পাওয়া প্রায় ১০ হাজার অভিবাসীকে ইউক্রেনের যুদ্ধ ফ্রন্টে পাঠানো হয়েছে।

তদন্ত কমিটির চেয়ারম্যান আলেকজান্ডার বাস্ত্রিকিন বৃহস্পতিবার এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন যে কর্তৃপক্ষ ৩০ হাজারের বেশি বিদেশীকে চিহ্নিত করেছে, সম্প্রতি যারা রাশিয়ার নাগরিকত্ব পেলেও সেনাবাহিনীতে নিবন্ধিত হয়নি।

বাস্ত্রিকিন বলেন কর্তৃপক্ষ রুশ আইনের এরকম বিধানের বাস্তবায়ন শুরু করেছে, নাগরিকত্ব প্রাপ্ত ব্যক্তিদের সেনাবাহিনীতে নিবন্ধিত হওয়া এবং প্রয়োজনে বিশেষ সামরিক অভিযানে অংশ নেয়ার প্রয়োজনীয়তার উল্লেখ যেখানে রয়েছে। তিনি আরও জানান যে এদের মধ্যে প্রায় ১০ হাজার জনকে ইউক্রেনের বিশেষ সামরিক অভিযান অঞ্চলে পাঠানো হয়েছে।

মধ্য এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে আসা বিপুল সংখ্যক শ্রমিক রাশিয়ায় আছে। তবে সামরিক বাহিনীতে নিবন্ধিত হওয়ার প্রয়োজনীয়তা এবং মোতায়েন অভিবাসীদের মধ্যে রাশিয়া ছেড়ে চলে যাওয়া শুরু করেছে বলে খবরে জানা গেছে।

রুশ সামরিক বাহিনী ইউক্রেনে অনেক সৈন্য হারিয়েছে বলে বলা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক ইনস্টিটিউট ফর দ্য স্টাডি অফ ওয়ার বলেছে যে, রুশ সরকার ইউক্রেনে প্রেরণের জন্য সাম্প্রতিক সময়ে নাগরিকত্ব গ্রহণ করা অভিবাসীদের নিয়োগ ও মোতায়েনের আইনি যে প্রক্রিয়া ব্যবহার করছে তা অস্পষ্ট।

সংস্থা বলেছে যে, রুশ সরকার হয়তো বহিষ্কার কিংবা কারাগারে আটক থাকা এড়িয়ে যেতে নাগরিকত্ব গ্রহণ করা অভিবাসীদের সামরিক সেবা অথবা স্বেচ্ছাসেবী ইউনিটে যোগদানের একটি চুক্তি স্বাক্ষরের সুযোগ দিচ্ছে।