জাপানে বেশিরভাগ বিদেশি পর্যটক কম পরিচিত স্থানগুলো ভ্রমণ করছেন

নতুন এক জরিপে দেখা গেছে যে জাপানে বিদেশি পর্যটকদের বেশিরভাগ পরিচিত স্থানগুলো ছেড়ে অপেক্ষাকৃত কম পরিচিত জায়গাগুলো পরিদর্শন করছেন৷

সামাজিক নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া তথ্য অপ্রত্যাশিত কিছু এলাকায় দর্শনার্থীদের সংখ্যার আকস্মিক বৃদ্ধিতে অবদান রাখছে।

টোকিও-ভিত্তিক তথ্য প্রযুক্তি কোম্পানি নেভিটাইম জাপান, বিদেশ থেকে আসা পর্যটকদের জন্য একটি পর্যটন অ্যাপ তৈরি করেছে। জিপিএস অবস্থানের তথ্যের উপর ভিত্তি করে মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত সময়ের জন্য পর্যটকদের বছরওয়ারী উচ্চ বৃদ্ধির হার থাকা পৌরসভাগুলোর ক্রম-তালিকা তৈরি করেছে এই কোম্পানি।

তালিকার শীর্ষে রয়েছে টোকিওর অদূরে অবস্থিত কানাগাওয়া জেলার মিনামিআশিগারা শহর, যেখানে পর্যটক বৃদ্ধি পেয়েছে ৩২ গুণ। এই সংখ্যা বৃদ্ধির নেপথ্য কারণ ছিল একটি পার্কে আগাম ফোটা চেরি ফুলের স্থানীয় একটি ধরন দেখতে আসা লোকের সংখ্যা।

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ফুকুই জেলার কাৎসুইয়ামা শহর, যেখানে পর্যটক বৃদ্ধি পেয়েছে ২৪ গুণ। এই শহরের জনপ্রিয় পর্যটন স্থানগুলোর মধ্যে রয়েছে এচিযেন দাইবুৎসু নামে পরিচিত একটি বিশাল বুদ্ধ মূর্তি।

এদিকে মিয়ে জেলার সুযুকা শহরটি রয়েছে তৃতীয় স্থানে, যেখানে এক বছর আগের তুলনায় দর্শনার্থীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় সাত গুণ।

নেভিটাইমের ভাষ্যমতে, জাপানে বারবার আসা পর্যটকদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকায় বেশিরভাগ লোকজন কম পরিচিত স্থানে যেতে চাচ্ছেন। তারা বলছে, সামাজিক নেটওয়ার্কে দেওয়া পোস্ট ভ্রমণকারীদের সংখ্যা বৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করছে।