জাপানিদের জন্য অস্ট্রেলিয়ায় ওয়ার্কিং হলিডে ভিসা বাড়ছে

অস্ট্রেলীয় সরকারের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে যে জাপানি আবেদনকারীদের ওয়ার্কিং হলিডে বা কাজের পাশাপাশি ছুটি কাটানো সংক্রান্ত ভিসা অনুমোদনের সংখ্যা বেড়ে চলেছে।

২০২৩ সালের জুন মাস পর্যন্ত ১৪ হাজারেরও বেশি ভিসা দেয়া হয়েছিল এবং চলতি বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত ৯ মাসে এই সংখ্যা ইতিমধ্যেই ১২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

দুর্বল ইয়েন এই ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা বাড়িয়ে তুলছে যা তরুণদের একটি বর্ধিত সময়ের জন্য অন্য দেশে বসবাস ও কাজ করার সুযোগ প্রদান করে থাকে। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, কানাডা এবং দক্ষিণ কোরিয়া সহ ৩০টি দেশের সাথে এধরনের চুক্তি রয়েছে জাপানের। ইংরেজিভাষী অঞ্চলগুলো এক্ষেত্রে বিশেষভাবে জনপ্রিয় এবং ওয়ার্কিং হলিডে ভিসা নিয়ে অর্ধেকেরও বেশি জাপানি অস্ট্রেলিয়ায় গিয়েছেন বলে অনুমান করা হচ্ছে।

অস্ট্রেলিয়ায় ন্যূনতম মজুরি জুলাই মাসে ৩.৭৫ শতাংশ বাড়িয়ে ২৪.১ অস্ট্রেলিয়ান ডলার বা ঘণ্টায় আড়াই হাজার ইয়েনের বেশি করা হবে।

তবে, এক্ষেত্রে লোকজনকে ন্যূনতম মজুরির থেকে কম অর্থ দেওয়া অথবা যৌন বা ক্ষমতাগত হয়রানির শিকার হওয়ার মতো কিছু সমস্যার কথা জানা গেছে।

মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ঐশী নানার ভাষ্যানুযায়ী, কিছু কাজে উচ্চ মজুরি দেওয়া হলেও কর্মীদের পর্যাপ্ত ইংরেজির দক্ষতা না থাকলে, তাদের কাজ খুঁজে পেতে অসুবিধা হতে পারে বা ন্যূনতম মজুরির চাইতে কম অর্থ প্রদান করা হতে পারে।