কোলেস্টেরল-হ্রাসকারী স্ট্যাটিনের আবিষ্কারক এন্দো আকিরার ৯০ বছর বয়সে পরলোকগমন

একজন জাপানি জৈব রসায়নবিদ মারা গেছেন, যার কোলেস্টেরল-হ্রাসকারী স্ট্যাটিনের আবিষ্কার করোনারি হৃদরোগের প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় বিপ্লব ঘটিয়েছিল। মৃত্যুকালে এন্দো আকিরার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।

এন্দো ১৯৩৩ সালে উত্তর-পূর্ব জাপানের আকিতা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি তোহোকু বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদ থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করার পর একটি ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিতে চাকরি শুরু করেন।

১৯৭০-এর দশকের গোড়ার দিকে এই কোম্পানিতে চাকরিরত থাকাকালে এন্দো কোলেস্টেরল প্রতিকারের লক্ষ্যে ওষুধের উন্নয়ন শুরু করেন। উল্লেখ্য, কোলেস্টেরল জমে গেলে ধমনী শক্ত হয়ে যেতে পারে।

১৯৭৩ সালে তিনি আবিষ্কার করেন যে নীল শ্যাওলা থেকে উৎপন্ন স্ট্যাটিন নামক একটি পদার্থ কোলেস্টেরল উৎপাদনে বাধা দেয় এবং রক্তে এর মাত্রা ব্যাপকভাবে হ্রাস করে।

১৯৮৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে আর্টেরিওস্ক্লেরোসিস রোগের ওষুধ হিসাবে প্রথমবার স্ট্যাটিনকে বাজারজাত করা হয়। এর দুই বছর পর থেকে এটি জাপানেও পাওয়া যায়। এক সময় স্ট্যাটিনকে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া ওষুধও বলা হত।

এন্দো তার কৃতিত্বের জন্য বেশ কয়েকটি মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার পেয়েছেন। ২০০৮ সালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে লস্কর পুরষ্কার এবং ২০১৭ সালে কানাডা গার্ডনার আন্তর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত হন। এছাড়া, ২০১১ সালে তিনি জাপানেও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে অবদান রাখার জন্য পুরস্কার পাওয়া এক ব্যক্তি হিসাবে সম্মানিত হন।

বিজ্ঞানীর ঘনিষ্ঠ সূত্রসমূহ জানিয়েছে, এন্দো ৫ই জুন টোকিওতে একটি নার্সিং সেবা স্থাপনায় মারা যান।