মে মাসে ইউক্রেনে অন্তত ১৭৪ জন বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু: জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা

জাতিসংঘের একটি মানবাধিকার সংস্থা জানিয়েছে, মে মাসে ইউক্রেনে অন্তত ১৭৪ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত ও ৬৯০ জন আহত হয়েছেন।

ইউক্রেনে জাতিসংঘের মানবাধিকার পর্যবেক্ষণ মিশন শুক্রবার ঘোষণা করে যে এটি হচ্ছে ২০২৩ সালের জুনের পর থেকে সর্বোচ্চ মাসিক বেসামরিক হতাহতের সংখ্যা।

মানবাধিকার সংস্থাটি এত বেশি হতাহতের কারণ হিসেবে, খারকিভ শহর এবং খারকিভের পূর্বাঞ্চলের অন্যত্র রুশ বাহিনীর তীব্র আক্রমণকে দায়ী করে। উল্লেখ্য, গত ১০ই ​​মে রাশিয়া দেশটির সাথে খারকিভ অঞ্চলের উত্তরের সীমান্ত ছাড়িয়ে আক্রমণ শুরু করে। রুশ বাহিনী রবিবার খারকিভ অঞ্চলে হামলা শুরু করলে সেখানে অনেক ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়।

এদিকে, হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সালিভান মার্কিন টিভি নেটওয়ার্ক সিবিএস-এর সাথে এক সাক্ষাৎকারে বলেন যে খারকিভে রুশ অভিযানের গতিবেগ "থেমে গেছে"।

তিনি এও বলেন যে, "খারকিভ এখনও হুমকির মধ্যে থাকলেও রুশরা সেই অঞ্চলে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে বাস্তব অগ্রগতি অর্জনে সক্ষম হয়নি।"

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি শনিবার প্রকাশিত একটি ভিডিওতে বলেন যে রুশ সেনাবাহিনী তাদের খারকিভ অভিযান কার্যকর করতে ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি এও বলেন যে, ইউক্রেনীয় বাহিনী ইউক্রেনের ভূখণ্ডে প্রবেশকারী রুশ ইউনিটগুলোকে ধ্বংস করছে।