জাপান-ইউক্রেন সহায়তা দলিলের বিস্তারিত বিবরণ প্রকাশ

ইউক্রেনকে জাপানের দিতে যাওয়া সহায়তা পদক্ষেপের বর্ণনা তুলে ধরা দ্বিপক্ষীয় একটি দলিল সম্পর্কে এনএইচকে জানতে পেরেছে। সূত্রসমূহ বলছে, জাপান সরকার আগামী সপ্তাহে নির্ধারিত সাতটি শিল্পোন্নত দেশের জোট জি-সেভেনের শীর্ষ সম্মেলনের বাইরে ইউক্রেনের সাথে সেই দলিল স্বাক্ষরের পরিকল্পনা করছে।

চলতি মাসের ১৩ তারিখে ইতালিতে শুরু হতে যাওয়া জি-সেভেন শীর্ষ সম্মেলনের বাইরে প্রধানমন্ত্রী কিশিদা ফুমিও এবং প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির মধ্যে আলোচনা ও দলিল স্বাক্ষরের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে খবরে জানা গেছে।

এনএইচকে জানতে পেরেছে যে নথিতে বলা হয়েছে, দেশের সাংবিধানিক কাঠামোর আওতায় ইউক্রেনকে নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা সহায়তা প্রদান জাপান অব্যাহত রাখবে।

বিভিন্ন পদক্ষেপের মধ্যে প্রাণঘাতী নয় সেরকম সরঞ্জাম ও সরবরাহের ব্যবস্থা, আহত ইউক্রেনীয় সৈন্যদের চিকিৎসা এবং গোয়েন্দা তৎপরতার ক্ষেত্রে সহযোগিতা অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

পুনর্গঠন সম্পর্কে দলিলে স্থল মাইন অপসারণ, নারী ও শিশুদের মানবিক পরিস্থিতির উন্নয়ন ও তাদের জীবনের পুনর্গঠন, এবং কৃষি খাতের অগ্রগতিতে জাপানের সহায়তা প্রদানের উল্লেখ থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নথিটি ১০ ​​বছরের জন্য বৈধ থাকবে এবং ইউক্রেনের প্রতি জাপানের অব্যাহত সমর্থন নিশ্চিত করবে।

গত জুলাই মাসে জাপান সহ ৩০টির বেশি দেশ রাশিয়ার চলমান হামলার মুখে ইউক্রেনের প্রতি সমর্থন স্পষ্টভাবে তুলে ধরার জন্য দ্বিপাক্ষিক একটি চুক্তি প্রণয়নের অঙ্গীকার করেছিল। এখন পর্যন্ত ১৫টি দেশ ইউক্রেনের সাথে সেরকম দলিল স্বাক্ষর করেছে বলে খবরে বলা হয়েছে।