নিরাপত্তা পরীক্ষা নিয়ে কেলেংকারির পর জাপানি কোম্পানির যানবাহন উৎপাদন ও চালান স্থগিত

যানবাহনের নিরাপত্তা পরীক্ষার কেলেংকারিতে জড়িত পাঁচটি জাপানি কোম্পানির মধ্যে দুটি কোম্পানি জানিয়েছে যে তারা এই কেলেংকারিতে প্রভাবিত মডেলগুলোর উৎপাদন স্থগিত করবে।

টয়োটা বৃহস্পতিবার থেকে তার মিইয়াগি এবং ইওয়াতে জেলার কারখানায় করোলা ফিল্ডার এবং আরো দুটি মডেলের গাড়ি উৎপাদন বন্ধ রাখার পরিকল্পনা করেছে। এই কোম্পানি মার্চে শেষ হওয়া গত অর্থবছরে জাপানে তাদের এই মডেলগুলোর প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার ইউনিট গাড়ি বিক্রি করেছে।

মাজদা তাদের হিরোশিমা এবং ইয়ামাগুচি জেলার কারখানায় রোডস্টার আরএফ এবং অন্য আরেকটি মডেলের গাড়ি উৎপাদন বন্ধ রাখতে চলেছে।

মার্চ মাস পর্যন্ত এক বছরে কোম্পানিটি এই দুটি মডেলের প্রায় ১৮ হাজার ইউনিট গাড়ি বিক্রি করেছে।

ওদিকে ইয়ামাহা অনুপযুক্ত ভাবে তাদের তিন ধরনের মোটরসাইকেলের নয়েজ পরীক্ষা চালায়। কোম্পানিটি তাদের একটি মডেলের মোটরসাইকেল ওয়াইযেডএফ-আর ওয়ান'এর চালান স্থগিত করেছে।

স্থানীয় অর্থনীতি এবং ব্যবসায়িক অংশীদারদের ওপর এই কেলেংকারির সম্ভাব্য প্রভাব নিয়ে উদ্বেগ ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে টয়োটা'র অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান দাইহাৎসু মোটর একটি নিরাপত্তা কেলেংকারি প্রকাশ হয়ে যাওয়ার পর উৎপাদন বন্ধ করে দেয়, যার ফলে যন্ত্রাংশ ও অন্যান্য উপকরণ সরবরাহকারী হাজার হাজার কোম্পানি সমস্যার মুখোমুখি হয়েছিল।

এটি ছিল অন্যতম প্রধান কারণ যার ফলে জাপানের সর্বসাম্প্রতিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পরিসংখ্যানে প্রথমবারের মতো দুটি ত্রৈমাসিকে হ্রাস পরিলক্ষিত হয়।