বাজারে হস্তক্ষেপের জন্য ৯.৮ ট্রিলিয়ন ইয়েন ব্যয় করার কথা নিশ্চিত করেছে জাপান

জাপানের অর্থ মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে যে দেশটি ইয়েনকে সমর্থন করার জন্য গত মাসে মুদ্রা বাজারে প্রায় ৯.৮ ট্রিলিয়ন ইয়েন বিনিয়োগ করেছে।

মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা শুক্রবার এই তথ্য প্রকাশ করেন যে সরকার এবং ব্যাংক অফ জাপান বা বিওজে গত ২৬ এপ্রিল থেকে ২৯ মে এর মধ্যে মার্কিন ডলার বিক্রি এবং ইয়েন কেনার জন্য প্রায় ৬২ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছে।

উল্লেখ্য, জাপানি মুদ্রা ডলারের বিপরীতে ৩৪ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে আসে এবং এক পর্যায়ে ১৬০এর স্তর স্পর্শ করে। তবে, এটি ২৯শে এপ্রিল ১৫৪-এর স্তরে ফিরে যায়।

এর তিনদিন পরে, গত ২রা মে, ইয়েনের ক্ষেত্রে দ্বিতীয়বারের মতো অনুরূপ এক দরবৃদ্ধি পরিলক্ষিত হয়।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে, বিনিয়োগকারীরা তাৎক্ষণিকভাবেই এটি অনুমান করতে শুরু করেন যে সরকার এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংক সম্ভবত গোপনে বাজারে হস্তক্ষেপ করেছে।

মে মাসের শুরুতে জাপানি মুদ্রা সাময়িকভাবে শক্তিশালী হয়ে ১৫১-এর স্তরে পৌঁছায়।

তবে, মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দ্বারা প্রত্যাশিত সময়ের চেয়ে দ্রুত সুদের হার বৃদ্ধির প্রত্যাশা হ্রাস পাওয়ার মাঝে এটি আবারও দর হারাতে শুরু করে। টোকিওতে আজ সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত, এটি ১৫৭-এর স্তরের আশেপাশে ওঠানামা করেছে।

উল্লেখ্য, জাপান সরকার এবং ব্যাংক অফ জাপান এর আগে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবর মাসে বাজারে হস্তক্ষেপের জন্য মোট প্রায় ৯.২ ট্রিলিয়ন ইয়েন ব্যয় করেছিল।