সম্ভাব্য বিশাল তেল ও গ্যাসের মজুদের জন্য অনুসন্ধানমূলক খনন শুরু করবে দক্ষিণ কোরিয়া

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন সং-নিয়োল এই তথ্য উন্মোচন করেছেন যে দেশটির দক্ষিণ-পূর্বে সমুদ্রের তলায় সম্ভাব্য বিশাল তেল ও গ্যাসের মজুদ থাকতে পারে।

প্রেসিডেন্ট আজ সোমবার সাংবাদিকদের বলেন যে অবস্থানটি দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর পোহাং'এর উপকূলের অদূরের সমুদ্রে অবস্থিত।

ইউন বলেন, জরিপের "সাম্প্রতিক ফলাফলে, ১৪ বিলিয়ন ব্যারেলের সমান তেল ও গ্যাস মজুদ থাকার খুব উচ্চ সম্ভাবনার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।"

তার ভাষ্যমতে, এটি দক্ষিণ কোরিয়ার সর্বোচ্চ ২৯ বছরের গ্যাস এবং ৪ বছর পর্যন্ত তেলের চাহিদা মেটাতে পারে। তিনি এও বলেন যে, এই ফলাফল শীর্ষস্থানীয় গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং বিশেষজ্ঞদের দিয়ে যাচাই করানো হয়েছে।

ইউন এও বলেন যে তিনি একইদিনে একটি খনন প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছেন এবং এক্ষেত্রে, আগামী বছরের প্রথমার্ধের মধ্যে কিছু ফলাফল পাওয়ার প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়োনহাপ বার্তা সংস্থার ভাষ্যানুযায়ী, যে এলাকার সমুদ্রতলের নীচে তেল ও গ্যাসের মজুদ থাকার সম্ভাবনা রয়েছে, সেটি দেশটির একান্ত অর্থনৈতিক অঞ্চলের মধ্যেই অবস্থিত।

দক্ষিণ কোরীয় সরকার বলছে যে অনুসন্ধানমূলক খননের মাধ্যমে মজুদ নিশ্চিত হওয়ার পরে, ২০৩৫ সালের দিকে বাণিজ্যিক উন্নয়ন শুরু হতে পারে।