সংলাপ এগিয়ে নিতে সম্মত হয়েছেন জাপান ও চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রীরা

জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী কিহারা মিনোরু শনিবার সিঙ্গাপুরে চীনা প্রতিপক্ষ দং জুনের সাথে অনুষ্ঠিত তার প্রথম বৈঠকে পূর্ব চীন সাগরে চীনের সমুদ্র তৎপরতা নিয়ে টোকিওর উদ্বেগের বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন।

দুই মন্ত্রী গত বছর তাদের প্রতিরক্ষা কর্তৃপক্ষের স্থাপন করা হটলাইন বজায় রাখতে এবং সংলাপ ও বিনিময় এগিয়ে নিতেও সম্মত হন।

কিহারা এক বছরের মধ্যে অনুষ্ঠিত দুই দেশের মধ্যে প্রথম প্রতিরক্ষামন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে তাদের মধ্যে বেশ কিছু নিরাপত্তা উদ্বেগ রয়েছে বলে মন্তব্য করার মধ্যে দিয়ে বৈঠকের সূচনা করেছেন। ওকিনাওয়া জেলার সেনকাকু দ্বীপমালার নিকটবর্তী বিভিন্ন এলাকা সহ জাপানি ভূখণ্ডের কাছে চীনের সামরিক তৎপরতা বৃদ্ধি এবং পূর্ব চীন সাগরে সামুদ্রিক কার্যকলাপের দৃষ্টান্ত তিনি তুলে ধরেন।

জাপান সেনকাকু দ্বীপমালা নিয়ন্ত্রণ করে। চীন ও তাইওয়ান দ্বীপগুলোর মালিকানা দাবি করে। জাপান সরকার এই অবস্থান বজায় রেখে চলেছে যে এক্ষেত্রে সার্বভৌমত্বের কোনও বিষয় নেই।

কিহারা তাদের নিজ নিজ প্রতিরক্ষা কর্তৃপক্ষের মধ্যে আলোচনা অব্যাহত রাখার গুরুত্বের ওপর জোর দিয়েছেন।

চীন ও ফিলিপাইনের মধ্যে সার্বভৌমত্বের বিরোধের কথা মাথায় রেখে কিহারা একই সাথে, দক্ষিণ চীন সাগরের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং তাইওয়ান প্রণালীতে শান্তি ও স্থিতিশীলতার গুরুত্বের ওপর জোর দেন।

দং বলেন যে দুই দেশের প্রতিরক্ষা কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই, তারা যেটাকে একে অন্যের বিরুদ্ধে হুমকি হিসাবে দেখে না সেরকম নীতি ও পদক্ষেপ বাস্তবায়নে যথাসাধ্য চেষ্টা করতে হবে এবং কিহারার সাথে যোগাযোগ বজায় রাখতে তিনি আগ্রহী।