বাইডেনের প্রকাশিত গাজা যুদ্ধবিরতির জন্য ইসরায়েলের প্রস্তাব নিয়ে ইতিবাচক অবস্থানে হামাস

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, গাজা ভূখণ্ডে ইসলামি গোষ্ঠী হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধবিরতির জন্য ইসরায়েলের একটি নতুন প্রস্তাব উন্মোচন করেছেন। হামাস এটা নিয়ে ইতিবাচক মনোভাব ব্যক্ত করেছে।

বাইডেন গতকাল শুক্রবার হোয়াইট হাউসে, তিন ধাপের পরিকল্পনাটি প্রকাশ করে বলেন যে, "এখন এই যুদ্ধ শেষ হওয়ার সময় এসেছে।"

বাইডেনের ভাষ্যমতে, প্রথম ধাপটি কয়েক সপ্তাহ ধরে চলবে। একটি "পুরোপুরি ও সম্পূর্ণ" যুদ্ধবিরতি, এতে গাজার সবগুলো জনবহুল এলাকা থেকে ইসরায়েলি বাহিনী প্রত্যাহার এবং ফিলিস্তিনি বন্দীদের মুক্তির বিনিময়ে নারী, বয়োবৃদ্ধ ও আহতরা'সহ জিম্মিদের প্রত্যাবর্তন অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

তিনি বলেন যে, দ্বিতীয় ধাপে অবশিষ্ট জীবিত সকল জিম্মিদের মুক্তি ও স্থায়ীভাবে বৈরিতার অবসানের জন্য একটি বিনিময় হবে।

বাইডেনের ভাষ্যমতে, তৃতীয় ধাপে একটি বৃহদাকারের পুনঃনির্মাণ পরিকল্পনা শুরু হবে।

প্রেসিডেন্ট জানান যে, কাতারের মধ্যস্থতাকারীরা ইসরায়েলের প্রস্তাবটি হামাসের কাছে পৌঁছে দিয়েছে।

তিনি বলেন যে এটি হচ্ছে "রাজনৈতিক নিষ্পত্তির লক্ষ্যে প্রণীত একগুচ্ছ প্রস্তাব, যা ইসরায়েলি এবং ফিলিস্তিনিদের জন্য আরও ভাল ভবিষ্যতের সুযোগ এনে দেবে।"

হামাস একই দিনে বাইডেনের বক্তৃতার বিষয়বস্তু তারা অনুমোদন করে বলে জানিয়েছে। এতে বলা হয় যে, এই ধরণের একটি চুক্তি নিয়ে ইসরায়েল স্পষ্টভাবে অঙ্গীকারবদ্ধ থাকলে স্থায়ী যুদ্ধবিরতি, গাজা থেকে ইসরায়েলি সৈন্য প্রত্যাহার, পুনর্গঠন, বাস্তুচ্যুত লোকদের প্রত্যাবর্তন এবং বন্দী বিনিময় সম্পন্ন করা সংক্রান্ত যে কোনো প্রস্তাবের ভিত্তিতে "ইতিবাচক ও গঠনমূলকভাবে" পদক্ষেপ নিতে তারা প্রস্তুত রয়েছে।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর কার্যালয় থেকে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলা হয় যে, বন্দীদের মুক্তির জন্য একটি রূপরেখা উপস্থাপন করতে প্রধানমন্ত্রী আলোচক দলকে অনুমোদন দিয়ে জোর দিয়ে বলেছেন যে, সকল জিম্মিদের প্রত্যাবর্তন ও হামাসের সামরিক ও প্রশাসনিক সক্ষমতা নির্মুল করা'সহ সবগুলো লক্ষ্য অর্জন না হওয়া পর্যন্ত এই যুদ্ধ শেষ হবে না।

এতে বলা হয় যে, পর্যায়ক্রমিক শর্তসাপেক্ষ উত্তরণ'সহ ইসরায়েলের প্রস্তাবিত রূপরেখাটি এসব নীতি বজায় রাখার অনুমোদন দেশকে দেয়।