চীন ও প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারের লক্ষ্য তালিবানের

আফগানিস্তানের তালিবান অন্তর্বর্তী সরকার জানিয়েছে যে, তারা বেইজিংয়ের বেল্ট অ্যান্ড রোড উদ্যোগের অধীনে চীনের সাথে অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করবে। উল্লেখ্য, তিন বছর আগে ইসলামপন্থী গোষ্ঠীটি পুনরায় ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে আফগানিস্তানের অর্থনীতি ক্রমাগত ধসে পড়ার মধ্যে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়।

তালিবানের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র এনএইচকে-র সাথে এবিষয়ে কথা বলেছেন। আখুন্দজাদা আব্দুল সালাম জাওয়াদ, বেইজিংয়ের সাথে বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদার করার দৃঢ় অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন যে, "আমরা আমাদের চীনা পক্ষের সাথে বেল্ট অ্যান্ড রোড উদ্যোগ নিয়ে আলোচনা করে এসেছি।" "এটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ, কারণ এই কাঠামোর মাধ্যমে আমরা চীন'সহ সমগ্র বিশ্বে পণ্য রপ্তানি করতে সক্ষম হব।"

তিনি বলেন, অন্তর্বর্তী সরকার উত্তর আফগানিস্তান ও চীনের মধ্যে একটি নতুন বাণিজ্যিক পথ নির্মাণের পরিকল্পনা করছে এবং আফগানিস্তানে উৎপাদিত তেল ও খনিজ সম্পদ রপ্তানি এগিয়ে নেবে।

জাওয়াদ বলেন যে, আফগানিস্তান তার মধ্য এশীয় প্রতিবেশী দেশ, যেমন তুর্কমেনিস্তান ও কাজাখস্তানের সঙ্গে সহযোগিতা জোরদার করবে। তিনি বলেন, এই তিনটি দেশ মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়াকে সংযুক্ত করার মধ্যে দিয়ে পশ্চিম আফগানিস্তানে বৃহদাকারের একটি সরবরাহ কেন্দ্র তৈরির পরিকল্পনা করছে।