কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণের ব্যর্থতা স্বীকার করেছেন কিম

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন প্রথমবারের মতো স্বীকার করেছেন যে গত সোমবার সামরিক গোয়েন্দা কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণে পিয়ংইয়ংয়ের চতুর্থ প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির সংবাদপত্র রোদং সিনমুন বুধবার জানিয়েছে যে, কিম মঙ্গলবার অ্যাকাডেমি অফ ডিফেন্স সায়েন্সে বক্তৃতা দিয়েছেন। মূলত, এই অ্যাকাডেমিই সামরিক গোয়েন্দা কৃত্রিম উপগ্রহ নির্মাণ করে থাকে।

জানা গেছে যে, কিম বক্তৃতায় উল্লেখ করেছেন সামরিক কৃত্রিম উপগ্রহ বহনকারী রকেটটি মধ্য আকাশে বিস্ফোরিত হয়েছিল। তিনি বলেন, উড্ডয়নের প্রথম ধাপে ইঞ্জিনে অস্বাভাবিকতা দেখা দেয়ার কারণে একটি স্বয়ংক্রিয় ধ্বংস ব্যবস্থা সক্রিয় হয়, যার ফলে এমনটি ঘটেছে।

কিম জোর দিয়ে বলেন যে উত্তর কোরিয়ার সামরিক গোয়েন্দা উপগ্রহের নির্মাণ ন্যায়সঙ্গত, কারণ দেশকে অবশ্যই মার্কিন সামরিক কৌশল ও উস্কানিমূলক কর্মকাণ্ডের মোকাবিলা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, উত্তর কোরিয়ার প্রতিরক্ষা ও নিবারক সক্ষমতা আরও জোরদার করার পাশাপাশি সম্ভাব্য হুমকি থেকে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য কৃত্রিম উপগ্রহের প্রয়োজন দেশটির রয়েছে।