মেধাবী ভারতীয় ছাত্রদের নিয়োগের সেমিনারে যোগ দিয়েছে জাপানি প্রতিষ্ঠানসমূহ

আইটি বা তথ্য-প্রযুক্তি খাতে তীব্র কর্মী ঘাটতির মাঝে জাপানি কোম্পানিগুলো ক্রমবর্ধমানভাবে একটি শীর্ষ ভারতীয় বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকদের নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা করছে৷

ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি বা আইআইটি'র ছাত্রদের নিয়োগ দেওয়ার বিষয়ে পরামর্শ লাভের জন্য প্রায় ১০০টি জাপানি কোম্পানির প্রতিনিধিরা সোমবার টোকিওতে একটি সেমিনারে অংশ নিয়েছেন।

অনুষ্ঠানটির আয়োজক ছিল ভারতীয় দূতাবাস।

আইআইটি হলো ভারতের শীর্ষ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। এর প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্যে রয়েছেন গুগল ও আইবিএম-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তারা।

ভারতীয় রাষ্ট্রদূত সিবি জর্জ অংশগ্রহণকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন যে তার দেশের ছাত্রদের মাঝে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে চাকরি খোঁজার প্রবণতা রয়েছে। তিনি একটি কাঠামোর প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দেন, যার মাধ্যমে জাপান দক্ষ প্রযুক্তি-সংক্রান্ত কর্মীদের আকর্ষণ করতে পারবে।

আইআইটি হায়দ্রাবাদের খণ্ডকালীন অধ্যাপক ফুজিসুয়ে কেনযো, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উচ্চ প্রোগ্রামিং দক্ষতা সম্পর্কে কথা বলেন৷ তিনি ব্যাখ্যা করেন যে ভারতে চাকরির নিয়োগ হয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মাধ্যমে, যা জাপানের ব্যবস্থার চেয়ে ভিন্ন।

অংশগ্রহণকারী কোম্পানির প্রতিনিধিরা জানতে আগ্রহী ছিলেন কেন ভারতীয় ছাত্ররা বিদেশে চাকরি খোঁজেন এবং জাপানি প্রতিষ্ঠানগুলো ভারত থেকে সদ্য পাশ করা ছাত্রদের নিয়োগ দিতে পারবে কিনা।

একটি প্ল্যান্ট নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের একজন অংশগ্রহণকারীর ভাষ্যমতে, জাপানে ভবন নির্মাণ খাতে ডিজাইনার এবং ব্যবস্থাপনা প্রকৌশলীর অভাব রয়েছে এবং এসব ক্ষেত্রে বিদেশী কর্মীদের প্রয়োজন।

তিনি বলেন, "আইটি দক্ষতার ক্ষেত্রে ভারত জাপানের চেয়ে কয়েক ধাপ এগিয়ে রয়েছে বলে আমি মনে করি।"