হৃদরোগে আক্রান্ত শিশুদের জন্য প্রসারণযোগ্য আবরণ আগামী মাস থেকে জাপানে পাওয়া যাবে

জন্মগতভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত শিশুদের হৃদযন্ত্রে ব্যবহারের জন্য একটি প্রসারণযোগ্য আবরণ যৌথভাবে তৈরি করেছে একটি জাপানি বিশ্ববিদ্যালয় এবং দেশটির কিছু বস্ত্র প্রস্তুতকারক। নতুন এই পণ্য জুন মাস থেকে জাপানের চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পাওয়া যাবে।

যেসব শিশুর হৃদপিণ্ড ও তার আশপাশের রক্তনালীর ছিদ্র আবরণ দিয়ে বন্ধ করার জন্য অস্ত্রোপচার করা হয়েছে, তাদের শরীর বড় হওয়ার সাথে সাথে সেই আবরণ প্রতিস্থাপনের জন্য বারবার অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হয়ে থাকে।

তবে নতুন এই আবরণ শিশুদের বৃদ্ধির সাথে সাথে প্রসারিত হবে, যার ফলে এর প্রতিস্থাপনের জন্য অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হবে না।

আবরণটি শিশু রোগীদের চিকিৎসার বোঝা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ওসাকা মেডিকেল অ্যান্ড ফার্মাসিউটিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, ওসাকা এবং ফুকুই জেলার বস্ত্র প্রস্তুতকারকদের সাথে যৌথভাবে আবরণটি উন্নয়ন করেছে।

সোমবার টোকিওতে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নেমোতো শিনতারো। তিনি বলেন যে তিনি আশা করেন আবরণটি শিশুদের প্রতিস্থাপন অস্ত্রোপচারের প্রয়োজনীয়তাকে বিলুপ্ত করবে এবং বিশ্ব বাজারেও এটি একটি প্রতিযোগিতামূলক পণ্য হয়ে উঠবে।

উল্লেখ্য, কৃত্রিম রজন এবং অন্যান্য উপকরণ দিয়ে তৈরি প্রচলিত আবরণগুলোর কোনও প্রসারণযোগ্যতা নেই। দ্রুত হলে শিশুদের আগের অস্ত্রোপচারের দুই বছর পর প্রতিস্থাপনের জন্য আবারও অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হয়।

নতুন আবরণটি জালের মতো করে সুতো দিয়ে তৈরি, যা আকারে বৃদ্ধি পেয়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়। এছাড়া, এর উপাদান শরীরের কোষসমষ্টিতে মিশে যেতে পারে, যার ফলে কার্যত প্রতিস্থাপন অস্ত্রোপচারের আর প্রয়োজন হয় না।