জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রীরা বিনিময় পুনরায় শুরু করা নিয়ে আলোচনা করবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে

জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রীরা, জাপানের আত্মরক্ষা বাহিনী এবং দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর মধ্যে বিনিময় পুনরায় শুরু করা নিয়ে আলোচনা করবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

জাপানের সরকারী সূত্রগুলো জানিয়েছে যে, আগামী ৩১শে মে সিঙ্গাপুরে শুরু হতে যাওয়া নিরাপত্তা বিষয়ক শাংগ্রি-লা সংলাপের পাশাপাশি জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী কিহারা মিনোরু এবং তার দক্ষিণ কোরীয় প্রতিপক্ষ শিন ওন-সিকের মধ্যে একটি বৈঠক আয়োজনের জন্য সমন্বয়ের কাজ চলছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে রাডার সংক্রান্ত একটি ঘটনার পর থেকে এসডিএফ ও দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর মধ্যকার পারস্পরিক বিনিময় স্থগিত রয়েছে।

জাপান সরকারের ভাষ্যানুযায়ী, দক্ষিণ কোরিয়ার নৌবাহিনীর একটি ডেস্ট্রয়ার জাপান সাগরের উপরে উড্ডয়নরত এসডিএফের একটি টহল বিমানের দিকে অগ্নি-নিয়ন্ত্রণ রাডার তাক করেছিল। তবে দক্ষিণ কোরিয়া, তাদের জাহাজটি বিমানটিকে রাডারের লক্ষ্যবস্তু করেনি বলে উল্লেখ করে।

সম্প্রতি দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের উন্নতি হওয়ায় জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রীরা গত বছর এই ধরনের ঘটনা প্রতিরোধের ব্যবস্থা'সহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা ত্বরান্বিত করতে সম্মত হন।

কিহারা এবং শিন রাডারের ঘটনা নিয়ে গভীরভাবে আলোচনা করবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে না, কেননা বিষয়টি নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যবধান বিরাজমান রয়েছে। তবে, এর পরিবর্তে আন্তর্জাতিক মানের উপর ভিত্তি করে এই ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করার ব্যবস্থার উপর আলোকপাত করার সম্ভাবনা রয়েছে।

মন্ত্রীরা যৌথ মহড়া এবং পারস্পরিক বিনিময় পুনরায় শুরু করার বিষয়েও আলোচনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।