হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ ইরানের সামরিক বাহিনীর

ইরানের সামরিক বাহিনী হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের তদন্তের বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যে দুর্ঘটনায় দেশটির প্রেসিডেন্ট'সহ কয়েক ব্যক্তি নিহত হন। এতে বলা হয়েছে, তদন্তকারীরা ফ্লাইট ক্রু এবং বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রকদের মধ্যে কথোপকথনে সন্দেহজনক কিছু লক্ষ্য করেননি।

রবিবার ইরানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ পূর্ব আজারবাইজানে হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। এতে, প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ান'সহ হেলিকপ্টারে থাকা আটজনেরই মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার সশস্ত্র বাহিনীর জেনারেল স্টাফ দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে তদন্তের প্রাথমিক ফলাফল প্রকাশ করে।

তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, হেলিকপ্টারটি পরিকল্পিত পথে যাওয়ার সময় একটি পাহাড়ে বিধ্বস্ত হয়ে আগুনে ভস্মীভূত হয়। এতে আরও বলা হয়, ধ্বংসাবশেষে কোনো বুলেটের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

প্রতিবেদনে এও বলা হয়েছে যে, দুর্ঘটনার প্রায় ৯০ সেকেন্ড আগে পাইলট ওই বহরের অন্য দুটি হেলিকপ্টারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এতে আরো বলা হয়, ফ্লাইট ক্রু এবং বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রকদের মধ্যে কথোপকথনেও অস্বাভাবিক কিছু শোনা যায়নি।