ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি রাশিয়ার

রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে তারা ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি'র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে।

এই তালিকায়, ২০১৪ সাল থেকে পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকা ইউক্রেনের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরোশেঙ্কো এবং দেশটির স্থল বাহিনীর কম্যান্ডার ওলেকসান্ডার পাভলিউক'কেও যুক্ত করা হয়েছে।

এই পদক্ষেপের কারণ হিসেবে শনিবার রুশ কর্মকর্তারা রাশিয়ার ফৌজদারি আইন লঙ্ঘনের কথা উল্লেখ করেছেন, তবে বিস্তারিত আর কিছু জানাননি।

এর প্রতিক্রিয়ায় একই দিনে ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যুদ্ধাপরাধের সন্দেহে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের জারি করা গ্রেপ্তারি পরোয়ানার কথা উল্লেখ করে।

বিবৃতিতে বলা হয়, জেলেনস্কি'র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির খবর "রাশিয়ার রাষ্ট্রযন্ত্র এবং প্রচার ব্যবস্থার মরিয়া হয়ে ওঠার দিকটি তুলে ধরছে, যারা এখন বুঝতে পারছে না মনোযোগ আকর্ষণের জন্য আর কী উদ্ভাবন করা যেতে পারে।"

গত শনিবার ইনস্টিটিউট ফর দ্যা স্টাডি অফ ওয়ার নামক একটি মার্কিন গবেষণা প্রতিষ্ঠান জানায় যে ক্রেমলিনের সিদ্ধান্ত সম্ভবত তাদের প্রচারণার একটি অংশ এবং "বর্তমান ও পূর্বের পশ্চিমপন্থী ইউক্রেনীয় সরকারগুলোকে হেয় করার" পাশাপাশি "ইউক্রেনকে কূটনৈতিকভাবে বিচ্ছিন্ন করার" একটি বৃহত্তর প্রয়াস।"