জাপানের সম্রাটের সিংহাসনে আরোহণের ৫ বছর পূর্ণ হলো

বুধবার জাপানের সম্রাট নারুহিতোর সিংহাসনে আরোহণের পাঁচ বছর পূর্ণ হচ্ছে।

এই সময়কালে, সম্রাট রাষ্ট্রের প্রতীক হিসাবে তার ভূমিকা অন্বেষণ করেছেন। তিনি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করাসহ করোনভাইরাস মহামারির মধ্যে মানুষের সাথে যুক্ত হওয়ার নতুন উপায়গুলিও অনুসন্ধান করেন।

সিংহাসনে বসার পর তার প্রথম সংবাদ সম্মেলনের সময়, সম্রাট বলেছিলেন যে তিনি অনেক লোকের সাথে দেখা করার এবং তাদের গল্প শোনার সুযোগের মূল্য দেবেন।

তিনি এই প্রতিশ্রুতির প্রতি অনুগত থেকেছেন, বার্ষিক অনুষ্ঠানের জন্য সম্রাজ্ঞী মাসাকোর সাথে জাপানের বিভিন্ন স্থানে তিনি ভ্রমণ করেছেন। তাদের পূর্বসূরিদের তৈরি করা পথ অনুসরণ করে, রাজদম্পতি বেঁচে থাকা লোকজনকে উৎসাহ দেওয়ার জন্য প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

সিংহাসনে আরোহণের প্রথমদিকে, ২০১৯ সালে ভারী বৃষ্টিতে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত জাপানের উত্তরপূর্বের জেলা মিয়াগি এবং ফুকুশিমা পরিদর্শনে যান তারা।

তবে করোনভাইরাস মহামারির ফলে প্রায় তিন বছরের জন্য এই ধরনের পরিদর্শন স্থগিত করতে বাধ্য হন তারা। এর পরিবর্তে, অনলাইনে যোগাযোগের মাধ্যমে মানুষের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করেছেন এই রাজদম্পতি।

এই বছরের মার্চ এবং এপ্রিল মাসে, তারা নববর্ষের দিন ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত মধ্য জাপানের ইশিকাওয়া জেলার নোতো উপদ্বীপের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন। কোভিড১৯-এর বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ার পরে এটি ছিল তাদের প্রথম এজাতীয় সফর।

একইসাথে সম্রাট এবং সম্রাজ্ঞী আন্তর্জাতিক বিনিময় বৃদ্ধি করার চেষ্টা করছেন। রানি এলিজাবেথের শেষকৃত্যে যোগ দিতে তারা ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ব্রিটেনে গিয়েছিলেন। সিংহাসনে বসার পর এটাই ছিল তাদের প্রথম বিদেশ সফর। গত জুনেও তারা ইন্দোনেশিয়ায় সরকারি সফরে যান।