২০৩০-এর দশকের প্রথম দিকে কয়লা শক্তি পর্যায়ক্রমে বন্ধ করাসহ বিবৃতি গ্রহণ করেছে জি-৭

সাতটি দেশের জ্বালানি মন্ত্রীরা ২০৩০-এর দশকের প্রথমার্ধের মধ্যে একটি বিকল্প পর্যায়ক্রমিক সময়সীমার মধ্যে কয়লা থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন পর্যায়ক্রমে বন্ধ করতে সম্মত হয়েছেন।

মন্ত্রীরা মঙ্গলবার ইতালির তুরিন শহরে তাদের দুই দিনব্যাপী আলোচনা শেষ করেছেন। এই বৈঠক গত বছরের কপ২৮ জাতিসংঘ জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলনের ধারাবাহিকতায় অনুষ্ঠিত হলো।

বৈঠকের পরে জারি করা একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে জি-৭, ২০৩০-এর দশকের মাঝামাঝি নাগাদ বিদ্যুৎ উৎপাদনে কয়লার ব্যবহার বন্ধ করবে, "অথবা দেশগুলো নিজস্ব নেট-জিরো নীতির সাথে সামঞ্জস্য রেখে তাপমাত্রা বৃদ্ধি ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস সীমার মধ্যে রাখার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ একটি সময়রেখায় এগিয়ে যাবে।"

এই বিবৃতিতে অন্যান্য দেশগুলোকে আগামী বছরের প্রথম দিকের মধ্যে ২০৩০ এবং পরবর্তী সময়ের জন্য তাদের নতুন নির্গমন হ্রাস লক্ষ্যমাত্রা জমা দেওয়ার জন্যও আহ্বান জানিয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে জি-৭, ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্বব্যাপী নবায়নযোগ্য শক্তির সক্ষমতা তিনগুণ বৃদ্ধি করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এতে বলা হয়, ব্যাটারি এবং অন্যান্য পদ্ধতির মাধ্যমে বর্তমান পর্যায় থেকে বিদ্যুতের সঞ্চয় ছয়গুণেরও বেশি বাড়িয়ে ১,৫০০ গিগাওয়াট করার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।