উত্তর কোরিয়া'র বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা তত্ত্বাবধানের ম্যান্ডেট শেষ হয়ে যাচ্ছে জাতিসংঘের প্যানেলের

উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার বাস্তবায়ন পর্যবেক্ষণের জন্য জাতিসংঘের একটি প্যানেলকে যে ম্যান্ডেট দেওয়া হয়েছে, আজ মঙ্গলবার সেটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। কারণ, এর মেয়াদ বৃদ্ধির প্রস্তাবে রাশিয়া ভেটো দিয়েছে।

গত মাসে রাশিয়া জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে উত্থাপিত প্যানেলের ম্যান্ডেটের মেয়াদ বৃদ্ধির এক প্রস্তাবে ভেটো দেয়।

২০০৯ সালে চালু হওয়া এই প্যানেল কীভাবে পিয়ংইয়ং নিষেধাজ্ঞা এড়িয়ে গিয়ে পারমাণবিক ও ক্ষেপণাস্ত্র উন্নয়ন কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছে, তা খতিয়ে দেখেছে।

প্যানেলটি প্রতি বছর দুবার করে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

জাতিসংঘের একটি সদস্য রাষ্ট্রের এক প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে সর্বসাম্প্রতিক দলিলে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার গণবিধ্বংসী কর্মসূচির মধ্যে শতকরা ৪০ ভাগের জন্য অর্থায়ন করা হচ্ছে "অবৈধ সাইবার ক্রিয়াকলাপ" থেকে।

ওতে এও বলা হয়, প্যানেলটি রাশিয়ায় উত্তর কোরিয়ার কথিত অস্ত্র সরবরাহের বিষয়টি খতিয়ে দেখেছে। উল্লেখ্য, এ ধরনের হস্তান্তর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্তের পরিপন্থী।

জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস-গ্রিনফিল্ড ইঙ্গিত দিয়েছেন যে নিষেধাজ্ঞা ফাঁকি দেওয়া নিয়ন্ত্রণের জন্য একটি নতুন ব্যবস্থা পত্তনে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া এবং অন্যান্যদের সাথে যুক্তরাষ্ট্র একযোগে কাজ করবে।

প্যানেলের প্রাক্তন সদস্য তাকেউচি মাইকো এনএইচকেকে বলেছেন যে তার ধারণা, রাশিয়া উত্তর কোরিয়া থেকে গোলাবারুদ আমদানির নিষেধাজ্ঞা এড়ানো সহজ করতে এবং অন্যান্য উদ্দেশ্যে প্রস্তাবটিতে ভেটো দিয়েছে।