জাপানে ছুটির গন্তব্য নির্বাচনের ওপর দুর্বল ইয়েনের প্রভাব

জাপানে বসন্তের ছুটি শুরু হয়েছে। নিউইয়র্কে ডলারের বিপরীতে ইয়েনের মূল্য সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য ১৫৮এর পর্যায়ে নেমে দুর্বল হয়ে পড়ার মাঝে এই ছুটি আরম্ভ হয়। এটি, গত ৩৪ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। দুর্বল জাপানি মুদ্রা অনেক বিদেশি দর্শনার্থীদের জন্য একটি আশীর্বাদ হয়ে দেখা দেয়ায়, বিপুল সংখ্যক বিদেশি পর্যটক পর্যটন স্থাপনাগুলোতে ভীড় জমাচ্ছেন।

টোকিওর কেন্দ্রভাগ থেকে প্রায় এক ঘন্টার দূরত্বে ঐতিহাসিক জনপদ কাওয়াগোয়ে শহর অবস্থিত। ঐতিহ্যবাহী গুদাম-ধাঁচের আবাসনগুলো হচ্ছে এখানকার অন্যতম প্রধান আকর্ষণ।

বর্তমানে ইয়েনের অবমূল্যায়ন জাপানে আগত বিদেশি পর্যটকদের দেশটিতে তাদের সময় উপভোগ করার আরও সুযোগ করে দিচ্ছে।

বিদেশ থেকে আসা একজন পর্যটক এনএইচকে'কে বলেন যে, দুর্বল ইয়েন তাদের জন্য কেনাকাটা ও জাপানের বিভিন্ন জায়গায় যাওয়া সহজ করে দিয়েছে।

এটি বিদেশি পর্যটকদের জন্য আনন্দের বিষয় হলেও জাপানি পর্যটকদের একই অনুভূতির অংশীদার হওয়া কঠিন।

একজন সদ্য বিবাহিতা নারী বলেন যে, "আসলে আমি বিদেশ ভ্রমণে যেতে চেয়েছিলাম, তবে বর্তমান সময়ে এটি খুব একটা সহজ নয়।"

দেশের প্রধান ভ্রমণ কোম্পানি জেটিবি'র পরিচালিত এক সমীক্ষায় দেখা যায় যে, ৭০ শতাংশের বেশি উত্তরদাতা রাত্রিযাপনের ভ্রমণ না করা বেছে নিচ্ছেন। এতে, গত বছরের তুলনায় আরও বেশি লোকজন অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের কথা জানান বলে উল্লেখ করা হয়।