ইরান সমর্থিত জঙ্গি গোষ্ঠী মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছে

সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলে মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ড্রোন হামলার দায় স্বীকার করেছে ইরান সমর্থিত একটি জঙ্গি গোষ্ঠী। এটি মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছে।

ইরাকের ইসলামিক রেজিস্ট্যান্স একটি বিবৃতি প্রকাশ করে জানায় যে গোষ্ঠীটি রবিবার সিরিয়ার দেইর ইজ-জোর'এ একটি মার্কিন ঘাঁটিতে ড্রোন দিয়ে হামলা চালায়। জঙ্গিরা আরও জানায় যে তারা "শত্রুর শক্ত ঘাঁটি" ধ্বংস করতে থাকবে।

শুক্রবার মার্কিন সামরিক বাহিনী ইরাক ও সিরিয়ায় ইরানের শীর্ষস্থানীয় সামরিক বাহিনীর স্থাপনায় বোমা হামলার পর এই ড্রোন হামলা চালানো হয়। জর্ডানে অপর একটি ড্রোন হামলায় তিনজন মার্কিন সেনা নিহত হওয়ার প্রতিশোধ হিসেবে এই বোমা হামলা চালানো হয়েছিল।

মার্কিন বিমান হামলা এই অঞ্চলের দেশগুলোর প্রতিক্রিয়াকে উসকে দিয়েছে।

সিরিয়ার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণকারী একটি মানবাধিকার সংস্থা জানায়, সোমবার সকাল পর্যন্ত সারারাত ইসলামিক রেজিস্ট্যান্স হামলা চালিয়ে যায়।

এতে বলা হয়, ঘাঁটিতে মার্কিন সেনাদের সঙ্গে উপস্থিত কুর্দি বাহিনীর সাত জন সদস্য নিহত হন।

মার্কিন প্রতিশোধমূলক বিমান হামলার লক্ষ্য ছিল জঙ্গি গোষ্ঠীর আক্রমণ প্রতিরোধ করা, তবে খুব শীঘ্রই সংঘর্ষ বন্ধ হওয়ার কোনো লক্ষণ আপাতত নেই।