ইশিকাওয়া জেলার ক্ষতিগ্রস্তরা অস্থায়ী আবাসনে যেতে শুরু করেছেন

জাপান সাগর উপকূলে নববর্ষের দিন ভূমিকম্পের আঘাতে গৃহহীন হওয়া লোকজনের জন্য প্রথম ধাপের অস্থায়ী আবাসন ইউনিটগুলো উন্মুক্ত করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, ইশিকাওয়া জেলার আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে এখনও ৮ হাজারেরও বেশি মানুষ অবস্থান করছেন।

ভূমিকম্পে বেঁচে যাওয়া ব্যক্তিরা গতকাল শনিবার ওয়াজিমা শহরে তাদের অস্থায়ী আবাসনে স্থানান্তরিত হতে শুরু করেছেন।

ভূমিকম্পের সময় অগ্নিকান্ডে নিজের বাড়ি ভস্মীভূত হওয়ার পর থেকেই ৭৬ বছর বয়সী এক নারী একটি আশ্রয়কেন্দ্রে তার মেয়ের পরিবারের সাথে অবস্থান করে আসছিলেন।

তার ভাষ্যমতে, "এটি মানসিকভাবে আরও বেশি আরামদায়ক। আমাকে আর অন্যদের নিয়ে উদ্বিগ্ন হতে হবে না।"

৫৫ ব্যক্তি সংশ্লিষ্ট থাকা মোট ১৮টি পরিবার এই ইউনিটগুলোতে স্থানান্তরিত হবে। তাদের মধ্যে দুর্যোগে ঘরবাড়ি হারানো, অথবা বয়স্ক এবং অতিরিক্ত যত্নের প্রয়োজন হওয়া ব্যক্তিরা রয়েছেন।

নগর কর্মকর্তারা অস্থায়ী আবাসনের জন্য ৪ হাজারেরও বেশি আবেদন পেয়েছেন।

এক্ষেত্রে, ইশিকাওয়া জেলার লক্ষ্য হচ্ছে, আগামী মার্চের শেষ নাগাদ অতিরিক্ত ৩ হাজার ইউনিটের নির্মাণ কাজ শুরু করা। এছাড়া, ১ হাজার ৩শটি ঘরের নির্মাণ সেই সময়ের মধ্যেই সম্পন্ন হওয়ার কথা।